কালিহাতিতে তৌহিদ ফিলিং স্টেশনে ভেজাল তেল বিক্রির অভিযোগ

কালিহাতিতে তৌহিদ ফিলিং স্টেশনে ভেজাল তেল বিক্রির অভিযোগ

প্রতিদিন প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের কালিহাতিতে তৌহিদ ফিলিং স্টেশনে অকটেনের সাথে ভেজাল তেল (গাদ) মিশিয়ে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার ঢাকা-এলেঙ্গা-জামালপুর মহাসড়ক সংলগ্ন ইছাপুরে সরেজমিনে দেখা যায় ভেজাল তেল বিক্রির অভিযোগে গ্রাহকের থেকে তেল ফেরত নিচ্ছে তৌহিদ ফিলিং স্টেশন কর্তৃপক্ষ। ভেজাল তেল ব্যবহার করে চরম বিপাকে পড়েন রাজাবাড়ি গ্রামের আশিকুর রহমান দোলন, বাবু মোল্লা, মাসুদ শিকদার, মেহেদী হাসান লাভু, সোহেল রানাসহ তৌহিদ ফিলিং স্টেশনের সাধারণ গ্রাহকরা। ভেজাল তেল বিক্রি ও ফেরত নেওয়ার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয় এবং স্থানীয় সুশীল সমাজের সকল নাগরিকের দৃষ্টি আকর্ষণ হয়।

ভুক্তভোগী আশিকুর রহমান দোলন জানান, ৬ই মার্চ রাতে ইছাপুর তৌহিদ ফিলিং স্টেশন থেকে তেল নেওয়ার পর থেকে মোটরসাইকেল শুধু ঢেক দেয় এবং পরবর্তীতে মোটরসাইকেলে ব্যাপক সমস্যা দেখা দিয়েছে। বাবু মোল্লা জানান, শনিবার মোটরসাইকেলের ট্যাংকি ফুল করে তেল নেই তারপর পর থেকে আমার বাইকে সমস্যা দেখা দেয়। এখন তেলের জন্য মোটরসাইকেলের ফিল্টার বদলাতে আট থেকে সাড়ে আট হাজার টাকা খরচ হয়। তাই আমরা তেল ফেরত দিচ্ছি। মেহেদী হাসান লাভু জানান, আমার মোটরসাইকেলে ভুক্তভোগী অন্যদের থেকে বেশী সমস্যা দেখা দিয়েছে এবং বাইক স্টার্ট নিচ্ছিল না অনেকক্ষণ চেষ্টা করার পর স্টার্ট নিলেও কিছুদূর যাওয়ার পর চলতি অবস্থায় স্টার্ট বন্ধ হয়ে যায়। এমতাবস্থায় সড়কে দুর্ঘটনার কবলে পড়েতে যাচ্ছিলাম।

তেল ফেরত নেওয়ার বিষয়ে তৌহিদ ফিলিং স্টেশনের কর্মচারী মোঃ রিপন জানান, সিরাজগঞ্জ থেকে তেল কিনে বিক্রি করা হয়। তেলে সমস্যা দেখা দিয়েছে এজন্য তেল ফেরত নেওয়া হচ্ছে। ম্যানেজার আনিছুর রহমান তেল ফেরত নেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, কিযে বলবো? তেলে সমস্যা হয়েছে বিধায় ফেরত নেওয়া হচ্ছে। রোববার দুপুরে তৌহিদ ফিলিং স্টেশনের পরিচালক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, তেলে ভেজাল রয়েছে অভিযোগ করায় তেল ফেরত নেওয়া হয়। তবে ভেজাল তেল বিক্রির অভিযোগ অস্বীকার করেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840