সংবাদ শিরোনাম:
মধুপুরে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের দায়ে জরিমানা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মাভাবিপ্রবি পরিবারের শ্রদ্ধা নিবেদন টাঙ্গাইলে আওয়ামীলীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী উদযাপিত বাসাইলে বজ্রাঘাতে কৃষকের মৃত্যু অচিরেই দেখা যাবে বিএনপি খণ্ডবিখণ্ড হয়ে পড়েছে: সাবেক কৃষিমন্ত্রী টাঙ্গাইলে প্রাইভেটকার-মাহিন্দ্রার সংঘর্ষে নিহত ২ স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে শিক্ষার পাশাপাশি খেলাধুলার বিকল্প নেই: শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী টাঙ্গাইলে ২হাজার ৮২টি ঈদুল আজহার জামাতের মাঠ প্রস্তুত টাঙ্গাইলে গরুর হাটের নিরাপত্তা ও মহাসড়কের যানজট নিরসনে কাজ করছে RAB টাঙ্গাইলে ১০৮ বোতল বিদেশী মদসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক
কালিহাতীতে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমির টপ সয়েল কেটে বিক্রির অভিযোগ

কালিহাতীতে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমির টপ সয়েল কেটে বিক্রির অভিযোগ

বিশেষ প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলায় হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কদিমহামজানী ও কুর্শাবেনু মৌজার নদী তীরের জমিগুলো থেকে বেকু দিয়ে টপ সয়েল কেটে বিক্রি করা হচ্ছে। স্থানীয় বালু ব্যবসায়ী জাহিদ হাসান ৪-৫ মাস ধরে মাটি কেটে অবাধে বিক্রি করছে বলে অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী।

জানাগেছে, কদিমহামজানী গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে জাহিদ হাসান পানি উন্নয়ন বোর্ডের নদী খননের মাধ্যমে উত্তোলন করা স্তুপকৃত বালুর (ড্রেজড ম্যাটারিয়াল) ১৭টি লটের মধ্যে জোকারচরের ৫নং লট গত বছরের নভেম্বর মাসে দরপত্রের মাধ্যমে কিনে নেন। তিনি ক্রয়কৃত বালু বিক্রির নাম করে আশপাশের জমির মাটি (টপ সয়েল) বেকু দিয়ে কেটে ট্রাকে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করছেন। অথচ কুর্শাবেনু ও কদিমহামজানী মৌজার মাটি-বালু উত্তোলন ও সরবরাহের উপর পাউবো দায়েরকৃত ১০২০/২০২২ নম্বর রিটের আলোকে হাইকোর্ট নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। কুর্শাবেনু ও কদিমহামজানী মৌজার বিভিন্ন স্থানে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি উল্লেখ করে পানি উন্নয়ন বোর্ড সাইনবোর্ড লাগিয়ে দিয়েছে।

সরেজমিনে কদিমহামজানী গ্রামের সুরুজ তালুকদার, জয়নাল আবেদীন, বাবুল হোসেন, কুর্শাবেনু গ্রামের আমিনুল ইসলাম, মাঞ্জু খাঁ সহ অনেকেই জানান, নদী খননের ড্রেজড ম্যাটার কিনে তা বিক্রি না করে জাহিদ হাসান হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমি থেকে মাটি কেটে বিক্রি করছেন। নিষেধাজ্ঞা থাকায় স্থানীয়রা ওইসব জমিতে ভুট্টা, বাদাম ও সবজি চাষ করে থাকেন। জাহিদ হাসান ওইসব জমিতে ফসল উৎপাদনকারীদের ট্রাক আনা-নেওয়ার জন্য সামান্য কিছু টাকা দিয়ে আবাদি জমির টপ সয়েল কেটে বিক্রি করছেন। কেউ আবাদকৃত জমির উপর দিয়ে ট্রাক যেতে না দিলে তার উপর নানাভাবে অত্যাচার-নির্যাতন চালানো হয়।

বালু ব্যবসায়ী জাহিদ হাসান জানান, তিনি সরকারের কাছ থেকে কিনে নেওয়া বালু-মাটি বিক্রি করছেন। ট্রাক যাতায়াতের জন্য স্থানীয়দেরকে টাকা দিয়ে তাদের জমি ব্যবহার করছেন। মহামান্য হাইকোর্টের আদেশ তিনি অমান্য করছেন না।

দুর্গাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম এ বিষয়ে তিনি কোন মন্তব্য করতে চান না। তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন।

কালিহাতী উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হুসেইন জানান, ক্রয়কৃত বালু বিক্রি না করে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া জায়হা থেকে মাটি কেটে বিক্রি করার বিষয়টি তিনি জানেন না। পাউবো’র পক্ষ থেকেও তাকে কিছু জানানো হয়নি। তারপরও খোঁজ নিয়ে তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, এ বিষয়ে তিনি অবগত নন। মহামান্য হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করার এখতিয়ার কারও নেই। খোঁজ নিয়ে তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840