গোপালপুরে বালুবাহী ট্রাক আটক ও জরিমানা

গোপালপুরে বালুবাহী ট্রাক আটক ও জরিমানা

প্রতিদিন প্রতিবেদক, গোপালপুর: অবশেষে বালুবাহী ট্রাকের উপর নজর পরেছে উপজেলা প্রশাসনের। এ পর্যন্ত ১০টি বালুবাহী ট্রাককে জরিমানা করা হয়েছে বলে উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে।

দীর্ঘ দিন ধরে পৌরবাসির অভিযোগ করে আসছিল, যমুনা নদীর ভূঞাপুর উপজেলার বিভিন্ন অবৈধ ঘাট থেকে প্রভাবশালীরা বালু তুলে ট্রাকে করে বৃহত্তর ময়মনসিংহের বিভিন্ন স্থানে চালান দিচ্ছিলো। দশ চাকার এসব অবৈধ বালুবাহী ট্রাক গোপালপুর উপজেলার বিভিন্ন সড়ক ধরে বিশেষ করে পৌর শহরের প্রধান সড়ক অতিক্রম করে পার হয়ে থাকে। এসব ট্রাকের ফিটনেস নেই, লাইসেন্স নেই, ট্যাক্স টোকেন জমা নেই এমনকি চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই। কোন চালকের লাইসেন্স থাকলেও সেটি হালকা যানের লাইসেন্স। অথবা ড্রাইডিং লাইসেন্স থাকলেও মেয়াদ চলে গেছে অনেক আগেই। বালুবাহী ট্রাকে অভারলোড তো থাকেই।

সওজ ও এলজিইডির সব সড়কের সক্ষমতা যেখানে বড় জোর ৩০টন সেখানে ৫০টন ওজনের বালুবাহী ট্রাক বেপরোয়া গতিতে চলাচল করায় সড়কের বেহালদশা হচ্ছে। পাকা সড়ক ছাড়াও কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে সরকার যে ব্রীজ, কালভার্ট ও বাঁধ নির্মাণ করছে তার আয়ু ক্ষয়ে যাচ্ছে। খোলা ট্রাকে বালু পরিবহন করায় বাতাসের টানে বালু উড়ে পথচারী বিশেষ করে স্কুলকলেজের শিক্ষার্থীদের চোখেমুখে ছিটে গিয়ে দুভোর্গ ঘটায়। সম্প্রতি বালুর ট্রাকের ধাক্কায় এক স্কুল ছাত্রী আহত হয়। ঢাকাস্থ পঙ্গ হাসপাতালে তার একটি পা কেটে ফেলা হয়। বালুট্রাক বন্ধের দাবিতে গত মঙ্গলবার থানা চত্বরে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা প্রশাসন বিভিন্ন সময়ে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ১০টি অবৈধ ট্রাক আটক এবং এক লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার পারভেজ মল্লিক জানান, অবৈধ ট্রাক ও যানের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840