গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য তুলে ধরতে টাঙ্গাইলে লাঠি খেলা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য তুলে ধরতে টাঙ্গাইলে লাঠি খেলা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

বিশেষ প্রতিবেদক: আধুনিক সভ্যতার আড়ালে হারিয়ে যাওয়া গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যকে বর্তমান প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার গালা ইউনিয়নের গালা বাজারে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো বিলুপ্তপ্রায় লাঠি খেলা প্রতিযোগিতা।
ঢাক-ঢোলের বাজনায়, গানের তালে তালে যেন এ আনন্দময় উৎসব আয়োজন। ঢাক, ঢোল আর কাঁসার ঘন্টার তালে তালে চলে লাঠির কসরত। প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাত থেকে নিজেকে রক্ষা ও পাল্টা আঘাত করতে ঝাঁপিয়ে পড়েন লাঠিয়ালরা। তাতে উৎসাহ দিচ্ছেন শত শত দর্শক। আবহমান বাংলার ঐতিহ্যবাহী এই আয়োজনকে ঘিরে স্থানীয়দের মাঝে ছিলো উৎসবের আমেজ। লাঠি খেলা দেখতে দূরদূরান্ত থেকে ছুটে এসেছেন দর্শকরা। যুবসমাজের মূল্যবোধের অবক্ষয় রোধে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক আয়োজন রাখতে পারে কার্যকরী ভূমিকা এমন অভিমত ব্যক্ত করেন খেলা দেখতে আসা অতিথি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। সেই সাথে নিয়মিত এই ধরনের আয়োজনের দাবি করেছেন দর্শক ও এ খেলায় জড়িতরা। সমাজ থেকে অন্যায় অপরাধ দূর করতে আর হারানো ঐতিহ্য ধরে রাখতেই এই আয়োজন।

স্বাধীনতা ও জাতিয় দিবস উদযাপন পরিষদের আয়োজনে এ খেলায় মোট ৪টি দল অংশ গ্রহণ করে। আয়োজিত অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: শহিদুল্লাহ এর সভাপতিত্বে উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: আলী হোসেন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন গালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: নজরুল ইসলাম খান। এছাড়াও সকল ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আয়োজন কমিটি বলেন, প্রতিবছর আমরা গ্রাম বাংলার হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য এই লাঠি খেলার আয়োজন করে থাকি। এ লাঠি খেলা দেখতে আমাদের এলাকা ছাড়াও দূরদূরান্ত থেকে প্রায় কয়েকশত মানুষ আসে। এতে করে একদিকে যেমন আনন্দ বিনোদন তৈরি হয়, অপর দিকে যুবক সমাজকে অন্যায় অপরাধ থেকে দূরে রাখতে সহায়তা করে।

কালের বির্বতনে হারিয়ে যাওয়া এই খেলা আজও টিকিয়ে রেখেছেন গুটি কয়েক মানুষ। গ্রামীণ এ ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলাকে ধরে রাখতে দরকার প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতা এমনটাই মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840