সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের পাঠাগারে বেলা’র বই প্রদান টাঙ্গাইলে সাংবাদিকদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে সকালে যানজট বিকেলে স্বাভাবিক ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের এলেঙ্গা থেকে সেতু পূর্ব পাড় পর্যন্ত বেড়েছে যানবাহনের চাপ, চলছে ধীর গতিতে সখীপুরে জেলা প্রশাসকের অর্থায়নে আশ্রয়ণ প্রকল্পে বৈদ্যতিক পাখা বিতরণ মধুপুরে মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার রোধে কর্মশালা মেয়াদোত্তীর্ণ ভ্যাকসিনে ১৪০০ হাঁসের মৃত্যু, অভিযোগ খামারীর ইয়াবাসহ মাদক কারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে আনন্দ শোভাযাত্রা গোপালপুরে বিদ্যুৎপৃষ্টে যুবক নিহত
টাঙ্গাইলে ঐতিহাসিক ফারাক্কা লং মার্চের ৪৬ তম দিবস উদযাপন

টাঙ্গাইলে ঐতিহাসিক ফারাক্কা লং মার্চের ৪৬ তম দিবস উদযাপন

প্রতিদিন প্রতিবেদক: নানা কর্মসুচির মধ্যদিয়ে টাঙ্গাইলে মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ঐতিহাসিক ফারাক্কা লং মার্চের ৪৬তম দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইল সাধারণ গ্রন্থাগারে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মওলানা ভাসানী ফাউন্ডেশনের আয়োজনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জাতিংঘের সাবেক পানি বিশেষজ্ঞ ড. এস আই খান।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মওলানা ভাসানী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান খন্দকার নাজিম উদ্দিন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ভাসানী ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা সৈয়দ ইরফানুল বারী ও ভাসানী ফাউন্ডেশনের মহাসচিব মাহমুদুল হক সানুসহ অনেকে। এ সময় আলোচকরা বলেন, গঙ্গা নদীর বুকে দেওয়া ভারতের ফারাক্কা বাঁধের কারণে ভাটিতে বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের প্রায় তিন কোটি মানুষ সেচের পানির অভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। দক্ষিণাঞ্চলের আরও প্রায় চার কোটি মানুষ ও এক-তৃতীয়াংশ এলাকা সেচের পানির অভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়েছে। আরও নানামুখী ক্ষতি হচ্ছে বাংলাদেশের। এ অবস্থার জন্য যারা দায়ী তাদের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ আদায় এবং গঙ্গার পানির ন্যায্য হিস্যা আদায়ে সরকারসহ সবাইকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান তারা।

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে সোমবার সকালে ন্যাপ ভাসানী ও ভাসানী পরিষদের পক্ষ থেকে মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে মাজারে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এ সময় ন্যাপ ভাসানী ও খোদা-ই-খেদমতগারের সভাপতি হাসরত খান ভাসানী, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ মফিজুল ইসলাম মজনু, মাভাবিপ্রবি ভাসানী পরিষদের সাবেক সভাপতি ড. ইকবাল বাহার বিদ্যুৎ, কার্যকরী সভাপতি মোহাম্মদ কামরুজ্জামান খান, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জিন্নাহসহ অন্যান্য নেতা-কর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ১৯৭৬ সালের এই দিনে রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদরাসা ময়দান থেকে শুরু হয় লংমার্চ। চাঁপাইনবাবগঞ্জের কানসাটে গিয়ে শেষ হয়। আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী পদ্মার পানির ন্যায্য হিস্যার দাবিতে মওলানা ভাসানী এ লংমার্চ করেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840