সংবাদ শিরোনাম:
ভূঞাপুরে চড়াই উৎরাইয়ের মধ্য দিয়ে সবার মনোনয়ন বৈধ কালিহাতীতে পৌলীতে রেল সেতুর দুই পাশে বালু বিক্রির মহোৎসব মাদরাসা ছাত্রীর প্রেমের টানে ও ঘর বাঁধতে টাঙ্গাইলে আরেক ছাত্রী মধুপুরে জৈব কৃষি ব্যবস্থাপনা বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত তীব্র গরম ও তাপদাহে অতিষ্ঠ মধুপুরবাসী বাড়ছে নানা রোগ সখীপুরে প্রকৃতি ও শান্তি সংঘের উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ টাঙ্গাইলের বাসাইল থেকে ৪৯ কেজি গাঁজা সহ ০৪ মাদক ব্যবসায়ী আটক পৌর উদ্যানের শতবর্ষী গাছ কাটার প্রতিবাদে মানববন্ধন  টাঙ্গাইলে পারিবারিক কলহে পিতাকে পিটিয়ে আহত করেছে ছেলে সিরাজগঞ্জে পুলিশের উপর হামলা, মদ ও অস্ত্রসহ আ.লীগ নেতার স্ত্রী আটক

টাঙ্গাইলে পেঁয়াজ ২৫০।। সবজিও চড়া দাম

প্রতিদিন প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলে বাজারে পেঁয়াজ ২৪০-২৫০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া শীতকালীন সবজির দাম তুলনা মূলক ভাবে অনেক বেশি। ক্রেতারা বাজার গুরে চাহিদানুযায়ী কিছু কিনতে পারছেন না।

জানা যায়, টাঙ্গাইল শহরের পার্ক বাজার, ছয়আনী বাজার, আমিন বাজার (গোডাউন বাজার), সাবালিয়া বাজার, নতুন বাস টার্মিনাল বাজার, বটতলা বাজার, বৈল্যা বাজার সহ শহরের আশপাশের বাজারগুলোতে গিয়ে একই পরিস্থিতি দেখা যায়।

শীতের আগাম সবজি ফুলকপি প্রতিকেজি ৬০-৭০ টাকা, বাধাকপি ৪০-৫০ টাকা, বড়বটি ৩০-৪০ টাকা, লাল শাক ২৫-৩০ টাকা, টমেটো (বিদেশি) ৮০-১০০ টাকা, গাজর (বিদেশি) ৯০-১০০টাকা, পালং শাক ৩০-৪০ টাকা, ধনে পাতা ১০-১১০ টাকা, শিম ৫০-৬০ টাকা, শশা ৭০-৮০ টাকা, মূলা ৩০-৪০ টাকা, ঢেড়স ৫০-৬০ টাকা, ঝিঁঙ্গে ৪০-৫০ টাকা, চিচিঙ্গা ৫০-৬০ টাকা, জলপাই ২০-২৫ টাকা, আলু (নতুন) ৯০-১১০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া সব সময়ের সবজি আলু (প্রকারভেদে) ৩০-৬০ টাকা, পেঁপে ২০-৩০, কাঁচকলা ৩০-৩৫টাকা (প্রতিহালি), প্রতিকেজি করলা ৫০-৬০টাকা, পটল ৪০-৫০ টাকা, বেগুন ৪০-৫০ টাকা, লাউ (মাঝারি সাইজ) ৫০-৬৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

পাইকারী বাজারে গিয়ে জানা যায়, আগাম শীতকালীন সবজি সবেমাত্র বাজারে উঠতে শুরু করেছে। তুলনামূলকভাবে দাম বেশি থাকায় খুচরা সবজি বিক্রেতারা বেছে বেছে ভাল সবজিগুলো কিনে নিচ্ছেন।

খুচরা বিক্রেতারা জানান, বছরের এই সময়ে শীতকালীন সবজির দাম সাধারণত নাগালের বাইরে থাকে। কিন্তু এবার আগাম শীতের সবজি বাজারে বেশি আমদানি হওয়ায় দাম ক্রেতার নাগালের মধ্যেই।

তারা আরো জানান, দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে সাধারণত শীতের সবজি আগে বাজারে আসে। এবার টাঙ্গাইলের কৃষকরাও শীতকালীন সবজির আগাম চাষ করায় সেগুলো বাজারে ওঠেছে।

ফলে আগাম শীতকালীন সবজি বাজারে আগেই এসেছে। দাম সামান্য কিছুটা বেশি হলেও সব ধরণের ক্রেতারা সবজি কিনতে পারছে। ভরমৌসুমে সবজির দাম আরো কমতে পারে বলে মনে করছেন তারা।

পার্ক বাজারে ক্রেতা প্রবীর কর্মকার, মো. আব্দুল মালেক, বটতলা বাজারে ক্রেতা আবু সুফিয়ান, আলম তালুকদার, সাবালিয়া বাজারে শামীম মল্লিক, রুস্তম আলী সহ ক্রেতারা জানান, কাঁচা বাজারে শীতের আগাম সবজি এসেছে।

দাম তুলনামূলকভাবে অনেকটা বেশি হলেও নাগালের বাইরে নয়। কিন্তু পেঁয়াজের দাম গত দুইদিনের ব্যবধানে ৯০-১০০ টাকা বেড়ে যাওয়ায় তারা ক্ষুব্দ ও হতাশ।

খুচরা বাজারে সবজি বিক্রেতা মো. শাহাদাত হোসনে, মো. হানিফ উদ্দিন, শামীমুর রহমান সহ অনেকেই জানান, পাইকারী বাজারে সব ধরণের সবজিই পাওয়া যাচ্ছে। নতুন সবজির দাম একটু বেশি।

পেঁয়াজের বাজার গত ১০-১৫দিন যাবত সকাল-বিকাল দাম বাড়ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) বিকালে প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম ছিল ১৮০-১৯০ টাকা, আজ শুক্রবার(১৫ নভেম্বর) সকালে বেড়ে হয়েছে ২৪০-২৫০টাকা।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলার সবজি চাষী বিক্রমহাটীর নুরুল ইসলাম, আ. রশিদ, ছামান আলী, মন্টু সরকার, গালা এলাকার সাইফুল, মজিদ মুন্সী, দাইন্যা এলাকার রফিকুল ইসলাম, আব্দুল মজিদ, আব্দুল মান্নান, সবেছ আলী সহ অনেকেই জানান, তারা বেশি দাম পাওয়ার আশায় আগাম শীতের সবজির চাষ করেন। কিন্তু এবার উত্তরাঞ্চল থেকে শীতের আগাম সবজি বাজারে আসায় তারা আশানুরূপ লাভবান হতে পারছেন না।

স্থানীয় পেঁয়াজ চাষী নুরুদ্দিন, জামাল শেখ, আবুল হোসেন জানান, তাদের জমির পেঁয়াজ এখনো বিক্রি করার উপযোগী হয়নি। বাজারের পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় তারা পেঁয়াজের উপড়েরর অংশ(কালী) বাজারে বিক্রি করে বেশ ভাল দাম পাচ্ছেন। এতে তারা খুব খুশি।

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) মো. মোশারফ হোসেন খান জানান, দ্রব্যমূল্যের বিষয়ে বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটি মনিটরিং করে থাকে। পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির বিষয়ে টাঙ্গাইলের বিভিন্ন বাজারে দ্রুত ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840