সংবাদ শিরোনাম:
রংপুরে শুরু হয়েছে শেখ হাসিনা অনুর্ধ্ব-১৫ টি টোয়েন্টি প্রমীলা ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ঘাটাইল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চশমা প্রতীক নিয়ে সাংবাদিক আতিক জনপ্রিয়তায় শীর্ষে ও জনসমর্থনে এগিয়ে ঘাটাইলে সেলাই মেশিন মার্কায় ভোট চাইলেন পৌর মেয়র আব্দুর রশীদ মিয়া টাঙ্গাইলে পুটিয়াজানী বাজারে দোকান ঘর ভাঙ্গচুরের অভিযোগ দেবরের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জে ২১৬ কেজি গাঁজাসহ আটক ২ ; কাভার্ড ভ্যান জব্দ সাফল্য অর্জনেও ব্যতীক্রম নয় জমজ দুই বোন,  লাইবা ও লামিয়া দুজনেই পেলেন জিপিএ- ৫ নাগরপুরে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার রাজপথে, প্রতিবাদ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত এক স্কুল থেকে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল জমজ দুই বোন মির্জাপুরে ধান চাল সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন টাঙ্গাইলে মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানের গার্ল-ইন- স্কাউটের সদস্যদের ডে ক্যাম্প
টাঙ্গাইল ট্রাক মালিক ও শ্রমিকদের ব্যাপক চাঁদাবাজি

টাঙ্গাইল ট্রাক মালিক ও শ্রমিকদের ব্যাপক চাঁদাবাজি

প্রতিদিন প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল ট্রাক মালিক ও শ্রমিকদের ব্যাপক হারে চাঁদাবাজীর মাত্রা বেড়ে গেছে। প্রায় এক যুগ ধরে চলে আসা এ চাঁদাবাজি প্রকাশ্যে চালিয়ে যাচ্ছে।

বালুবাহি ট্রাক থেকে প্রতিদিন চার লাখ টাকা চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। দিনে রাত মিলিয়ে ২৪ ঘন্টা প্রতিটি ট্রাক থেকে ২০০ টাকা করে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। আর এই চাঁদার টাকা ট্রাক মলিকা ও শ্রমিককের নাম করে বিভিন্ন প্রভাবশালী ও সরকার দলীয় লোকদের পকেটে যাচ্ছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় রসুলপুর ও ঘারিন্দা মহাসড়কের পাশেই অস্থায়ী মালিক ও শ্রমিক নেতাদের তৈরি করা কার্যালয়ের সামনে গিয়ে দেখা যায় কয়েকজন ট্রাক মালিক ও শ্রমিক নেতা বসে রয়েছেন। এর মধ্যে বালু ভর্তি একটি ট্রাক দ্বার করালে চালক দুইশত টাকা দিয়ে চলে যান।

ওই শ্রমিক জানান, প্রতিটি বালু ভর্তি ট্রাক থেকে দুইশত টাকা আদায় করা হয়। প্রতিদিন গড়ে প্রায় দুই হাজার বালুভর্তি ট্রাক এই মহাসড়ক দিয়ে চলাচল করে। প্রত্যেকটির কাছ থেকেই টাকা নেয়া হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে অন্য এক শ্রমিক নেতা জানান, আগে ঘারিন্দা বাইপাস এলাকা ট্রাক থামিয়ে টাকা আদায় করা হতো। প্রশাসনের সাথে একটু সমস্যা হওয়ায় এখন এই স্থান (রসুলপুর) থেকে টাকা আদায় করা হয়। আর এই টাকা নেতা থেকে শুরু করে প্রশাসনের বিভিন্ন স্তুরের কর্মকর্তাদের ভাগ দেয়া হয়।

মির্জাপুরগামী বালু ভর্তি ট্রাক চালক মোঃ মান্নান মিয়া জানান, তিনি কালিহাতী উপজেলার পুংলী থেকে বালু নিয়ে যাওয়ার সময় তার ট্রাক থামিয়ে দুইশ টাকা দাবি করা হয়। এসময় শ্রমিক নেতারা তাকে জানান এই মহাসড়ক দিয়ে বালু নিতে হলে দুইশ টাকা দিতে হবে। পরে তিনি বাধ্য হয়ে তাদের দুইশ টাকা দিয়ে চলে যান।

ভূঞাপুরের বালু ব্যবসায়ীরা জানান, তাদের বালু মহাল থেকে প্রতিদিন গড়ে প্রায় দেড় হাজার ট্রাক বালু নিয়ে মির্জাপুর, গোড়াই এবং পাকুল্যাসহ গাজীপুর ও এর আশেপাশের এলাকায় যায়।
নাটিয়াপাড়াগামী ট্রাকের চালক সাইদুর রহমান জানান, পূংলী বা ভূঞাপুর থেকে বালু নিয়ে এ সড়কে আসলেই রসুলপুর তাদের দুইশ টাকা করে দিতে হয়। তা না হলে বালু নেয়া বন্ধ করে দেয়া হয়। তিনি প্রতিদিন গড়ে তিন থেকে চার বার এ সড়ক দিয়ে বালু নিয়ে যান বলে জানান।

একটি সূত্র জানিয়েছে, প্রতিদিনের চাঁদার টাকা জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনসহ স্থানীয় বেশ কয়েকজন সরকার দলীয় নেতাদের ভাগ দিয়ে বাকি অংশ মালিক ও শ্রমিক নেতারা ভাগ করে নেন।

টাঙ্গাইল ট্রাক শ্রমিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বালা মিয়া এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

টাঙ্গাইল ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি পৌর মেয়র জামিলুর রহমান মিরন জানান, বালু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট ভাঙ্গতে এবং সাংগঠনিক খরচের জন্য প্রতি ট্রাক থেকে দুইশত টাকা নেয়া হচ্ছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840