সংবাদ শিরোনাম:
রংপুরে শুরু হয়েছে শেখ হাসিনা অনুর্ধ্ব-১৫ টি টোয়েন্টি প্রমীলা ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ঘাটাইল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চশমা প্রতীক নিয়ে সাংবাদিক আতিক জনপ্রিয়তায় শীর্ষে ও জনসমর্থনে এগিয়ে ঘাটাইলে সেলাই মেশিন মার্কায় ভোট চাইলেন পৌর মেয়র আব্দুর রশীদ মিয়া টাঙ্গাইলে পুটিয়াজানী বাজারে দোকান ঘর ভাঙ্গচুরের অভিযোগ দেবরের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জে ২১৬ কেজি গাঁজাসহ আটক ২ ; কাভার্ড ভ্যান জব্দ সাফল্য অর্জনেও ব্যতীক্রম নয় জমজ দুই বোন,  লাইবা ও লামিয়া দুজনেই পেলেন জিপিএ- ৫ নাগরপুরে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার রাজপথে, প্রতিবাদ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত এক স্কুল থেকে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল জমজ দুই বোন মির্জাপুরে ধান চাল সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন টাঙ্গাইলে মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানের গার্ল-ইন- স্কাউটের সদস্যদের ডে ক্যাম্প
দেলদুয়ারে জমি সংক্রান্ত বিরোধে মুকুল রানার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা

দেলদুয়ারে জমি সংক্রান্ত বিরোধে মুকুল রানার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা

প্রতিদিন প্রতিবেদক: দেলদুয়ার উপজেলার হিংগানগর বেপারী পাড়া গ্রামের মুকুল রানার বাসায় হামলা, লুট ও জবর দখলের অভিযোগ উঠেছে। মুকুল রানা হিংগানগর বেপাড়ী পাড়া গ্রামের ওহাজ উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আটিয়া ইউনিয়নের বারটিয়া মৌজায় ১০ শতাংশ জমি নিয়ে ঐ এলাকার গরেজ উদ্দিনের ছেলে ফজলুল হকের সাথে বিরোধ চলছিল। তারই ধারাবাহিকতায় শনিবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে বসত বাড়িতে হামলা করা হয়।

সরেজমিনে জানা যায়, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে শনিবার দুপুরে ফজলুল হকের মেয়ের জামাই মোস্তফার নেতৃত্বে আজিজুল, মফিজুলসহ প্রায় অর্ধশতাধিক ভাড়াটে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে প্রবাসী মুকুল রানার বসত বাড়িতে অনুপ্রবেশ করে বাসার লোকজনকে এ্যালোপাথারি মারধর করে এবং বাসা থেকে সবাইকে বের হয়ে যেতে বলা হয়।

এসময় তাদের বাধা প্রদান করলে বাসার পুরুষ, মহিলা ও শিশুদেরকেও আহত করা হয়। এমনকি এঘটনা পুলিশ ও সাংবাদিক যদি জানে তাহলে সবাইকে হত্যার হুমকি প্রদান করে ঘরে তালা দিয়ে চলে যায় তারা। এ ব্যাপারে প্রতিবেদককে আহত ও প্রত্যাক্ষ দর্শীরা জানান, ফিল্মি স্টালে ভাড়াটে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ফজুলুল হকের মেয়ের জামাই হামলা করে।

এসময় ঘরে থাকা আসবাবপত্র ভাংচুর করে ও নগদ টাকাসহ স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে আটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার মুরাদ চৌধুরী জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে দুপক্ষকে পূর্বেও চার পাঁচ বার পরিষদে বসলেও কোন মিমাংসা হয়নি। পরে তাদেরকে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে আদালতে আইনের আশ্রয় নিতে বলা হয়।

এব্যাপারে আটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল ইসলাম মল্লিক এর সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

দেলদুয়ার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সায়েদুল হক ভূইয়া জানান, ঢাকায় অবস্থান করায় এ ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840