সংবাদ শিরোনাম:
দেলদুয়ার থানা পরিদর্শন করেন পুলিশ সুপার কালিহাতীতে সাংবাদিকদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ টাঙ্গাইলে শুটিং ট্যালেন্ট হান্ট প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে পিকআপ ভ্যান-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে কৃষি কর্মকর্তাসহ দুইজন নিহত সখীপুরে দেশি প্রজাতির বৃক্ষরোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধন ধনবাড়ী পৌরসভার উদ্যোগে  ভিজিএফ এর চাল বিতরন দেলদুয়ারে ৩৯৫ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে স্পন্দনবি বৃত্তি প্রদান গোপালপুরে সন্তান হত্যার পর বিষপান বাবার পর মায়ের মৃত্যু কালিহাতীতে জীবিতকে মৃত দেখিয়ে ইউপি সদস্যর শ্বাশুড়ি নামে বিধবা কার্ড টাঙ্গাইলে “টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জন এবং নৈতিক শিক্ষার প্রসার বিষয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত
দেশের মধ্যে বৈসম্য আর দুর্নীতি চরমভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে – রাশেদ খান মেনন

দেশের মধ্যে বৈসম্য আর দুর্নীতি চরমভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে – রাশেদ খান মেনন

প্রতিদিন প্রতিবেদক: বাংলাদেশ একদিকে যেমন উন্নয়নের ধারায় অগ্রসর হচ্ছে, সঙ্গে সঙ্গে দেশের মধ্যে বৈসম্য আর দুর্নীতি চরমভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশের উন্নয়ন হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এতে কোন সন্দেহ নেই। তবে এই উন্নয়নের ফলাফল জনগন পাচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, যে আলোচনা হয়েছে তাতে আমরা এখনো জোটবদ্ধ আছি এবং জোটবদ্ধভাবেই নির্বাচনে যাবে। তবে জোটবদ্ধ না হলে নির্বাচন নিয়ে যে ষড়যন্ত্র চলছে সেটি কার্যকর হয়ে যাবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সরকারে যাওয়ার বিষয়টি আমাদের কন্ডিশন না। আমরাতো একটা অসম্প্রদায়িক গনতান্ত্রিক রাজনীতির ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি। সেই ঐকটা যতদুর পর্যন্ত প্রাসঙ্গিক থাকবে ততদিন পর্যন্ত জোট থাকবে। আর বড়দল আওয়ামী লীগ যদি মনে করে তারাই যতেষ্ট তাহলে আমাদের তখন সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

শনিবার বিকেলে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে টাঙ্গাইল জেলা শাখার আয়োজনে আলোচনা সভায় যোগদানের আগে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর দল কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ জোটে আসার বিষয়ে তিনি বলেন, অসাম্প্রাদায়িক গনতান্ত্রিক রাজনীতি এবং মুক্তিযুদ্ধের ধারা অব্যাহত রাখার রাজনীতির সাথে সংযুক্ত হয়ে যারা এখানে আসতে চায় তাহলে অবশ্যই তাদের স্বাগত জানানো হবে। কিন্তু যদি রাজনীতিকে পিছনে ফেলে দিতে চান তাহলে নিশ্চই আমরা তাকে স্বাগত জানাবো না।

রাশেদ খান মেনন আরো বলেন, আমরা ১৪ দলে আছি। আমরা জোট বদ্ধ হয়ে ২০১৪ সালের পর থেকে যেভাবে আন্দোলন সংগ্রাম করে বিএনপি জামায়াত জোট শাসনের পতন ঘটিয়েছি এবং পরবর্তীতে ১৪ দল ক্ষমতায় আসার পর যুদ্ধাপরাধিদের বিচারকে কেন্দ্র করে সারাদেশে বিএনপি জামাত যে নৈরাজ্য সৃষ্টি করেছিল তাও প্রতিরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু ২০১৮ সালের নির্বাচনে ১৪ দলের মূল যে দল আওয়ামী লীগ, তারা সরকারটাকে আওয়ামী লীগের সরকার বলেই পরিচিত করিয়েছে।

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টি টাঙ্গাইল জেলা শাখার কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক ও গোলাম নওজব পাওয়ার চৌধুরীসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

 

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840