সংবাদ শিরোনাম:
বিন্দুবাসিনী স্কুলের সীমানা প্রাচীর অপসারণ বন্ধের দাবিতে মানববন্ধ ধনবাড়ীতে প্রাইভেটকার চাপায় নিহত ১ আহত ৪ ভূঞাপুরে ৩৭টি পূজা মন্ডপে পৌর মেয়রের আর্থিক অনুদান টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর সম্পাদক রৌফ সাফ জয়ী কৃষ্ণা রানী সরকার ও কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটনকে সংবর্ধনা দিয়েছে টাঙ্গাইল জেলা ক্রীড়া সংস্থা ভাসানীর মাজারে ন্যাপ ভাসানীর পুষ্পস্তবক অর্পণ গোপালপুরে কৃষ্ণাকে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সংবর্ধনা নাগরপুরে এবারের দুর্গোৎসব হবে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় বজ্রপাত প্রতিরোধে বাতিঘর আদর্শ পাঠাগারের উদ্যোগে তালবীজ বপন বিএনপির মিথ্যাচার করে দেশে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করছে -কৃষিমন্ত্রী
পুনরায় ভোট গ্রহণ ও গণনার দাবি চার কাউন্সিলর প্রার্থীর

পুনরায় ভোট গ্রহণ ও গণনার দাবি চার কাউন্সিলর প্রার্থীর

প্রতিদিন প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল পৌরসভা নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলে পুনরায় ভোট গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন চার কাউন্সিলর প্রার্থী।

৪ নং ওয়ার্ডের উটপাখি প্রতীকের প্রার্থী মীর মইনুল হক লিটন, ৮ নং ওয়ার্ডের পাঞ্জাবী প্রতীকের শফিকুল ইসলাম, ৯ নং ওয়ার্ডের ডালিম প্রতীকের মো. আব্দুর রাজ্জাক ১২ নং ওয়ার্ডের উটপাখি প্রতীকের প্রার্থী মো. মুনসুর রহমান গতকাল রবিবার বিকেলের দিকে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ দাবি জানান।

মীর মইনুল হক লিটন সম্মেলনে অভিযোগ করেন, আনোয়ার সাদাৎ তানাকার পক্ষে পাঞ্জাবী প্রতীকে জোরপূর্বক ভোট দেয়া হচ্ছিল। এর প্রতিবাদ করা হলে তার লোকজন ও ভোটারদের সাথে অসৎ আচরণ করা হয়। ভোটগণনার সময় তিনি কেন্দ্রে উপস্থিত হলে পুলিশ ও বিজিবি লাঠিচার্জ করে লোকজনকে সরিয়ে কেন্দ্রের ভেতরে প্রবেশ করে প্রিজাইডিং অফিসারের ঘোষণা ছাড়াই ব্যালট বাক্স গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। ৪ নং ওয়ার্ডের বেড়াডোমা ও দিঘুলিয়া কেন্দ্রে একই ঘটনা ঘটে। ফলে এ ওয়ার্ডে পুনরায় সুষ্ঠু নির্বাচন দিয়ে ভোটগ্রহণ করে ফলাফল প্রকাশ করার দাবি জানান তিনি। এ ব্যাপারে রিটার্নিং অফিসারের কাছে অভিযোগ দেয়া হয়েছে এবং তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও জানান মীর মইনুল হক লিটন।

১২ নং ওয়ার্ডের প্রার্থী মো. মুনসুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন, নির্বাচনের দিন তার ওয়ার্ডের অপর কাউন্সিলর প্রার্থী আমিনুর রহমান আমিনের লোকজন ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করে ভোট কারচুপি করতে থাকে। এলাকাবাসী এর প্রতিবাদ করলে তার লোকজন ও ভোটারদের সাথে অসৎ আচরণ করা হয়। পুলিশ লাঠিচার্জ করলে লোকজন সেখান থেকে চলে যায়। পরে প্রিজাইডিং অফিসারের ঘোষণা ছাড়াই ব্যালট বাক্স গাড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনিও পুনরায় সুষ্ঠু নির্বাচন দিয়ে ভোটগ্রহণ করে ফলাফল প্রকাশ করার দাবি জানান।

এদিকে ৯ নং ওয়ার্ডের মো. আব্দুর রাজ্জাক অভিযোগ করেন, কারচুপির মাধ্যমে ডালিম প্রতীকের ভোট অপর প্রার্থী পাঞ্জাবী প্রতীকের পক্ষে দেখানো হয়েছে। পরে পাঞ্জাবী প্রতীকের প্রার্থী ফারুক হোসেনকে বিজয়ী দেখানো হয়। ফলাফল সিটও তাকে দেয়া হয়নি। পুনরায় ভোট গণনা করা হলে তিনি অনেক বেশি ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হবেন। ফলে ঘোষিত ফলাফল স্থগিত করে পুনরায় ভোট গণনা করার দাবি জানান মো. আব্দুর রাজ্জাক।

একই অভিযোগ করেন ৮ নং ওয়ার্ডের পাঞ্জাবী প্রতীকের শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, পাঞ্জাবী প্রতীকের ভোট উটপাখি প্রতীকের পক্ষে দেখানো হয়েছে। ফলে তিনি পরাজিত হয়েছেন। পুনরায় ভোট গণনা করা হলে তিনি অনেক বেশি ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হবেন বলে দাবি করেন শফিকুল ইসলাম।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840