ভূঞাপুরে দুই অপহরণকারী আটক

ভূঞাপুরে দুই অপহরণকারী আটক

প্রতিদিন প্রতিবেদক ভূঞাপুর : মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীর টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর জোনাল অফিসের হিসাব রক্ষক মো. আলমগীর তালুকদার (৫৫) কে অপহরণ করে মুক্তিপন দাবির অভিযোগে রাজু আহমেদ (২৫) ও রাকিব (১৫) নামের দুই অপহরণকারীকে আটক করেছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ। অপহরণকারীরা হলেন- টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার সিলিমপুর গ্রামের মজনু মিয়ার ছেলে রাজু আহমেদ ও একই গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে রাকিব।

মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীর ভূঞাপুর জোনাল অফিসের ম্যানেজার তারিকুল ইসলাম তুহিন জানান, আলমগীরকে অজ্ঞাত মোবাইল ফোন থেকে এক ব্যক্তি জানান আমার আত্মীয় আমেরিকা প্রবাসী মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্সে কোম্পানীতে একটি বীমা করবে। পরবর্তীতে অফিস শেষে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে আমি ও আলমগীর মোবাইল ফোনে জানানো ঠিকানা ভূঞাপুরস্থ শিয়ালকোল ভূঞাপুর ফিলিং স্টেশনে যাই। সেখানে গিয়ে তাদের দু’জনকে দেখতে পাই এবং তারা আমাদের জানায়, যে ব্যক্তি বীমা করবে সে আমার আত্মীয় এখানে আসতে একটু দেরী হবে। তাই আমরা ভূঞাপুরে চলে আসি। পরবর্তীতে তাদের সাথে নিয়ে ভূঞাপুর চলে আসি। তারা দু’জন আলমগীরকে সাথে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ছয়ানী বকশিয়া আলমগীরের বাড়িতে বীমা করার জন্য ভূঞাপুর থেকে রওনা হয় এবং ছয়ানী বকশিয়া না গিয়ে আলমগীরের বুকে ছুরি ঠেকিয়ে কালিহাতী উপজেলার বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন একটি বয়েল মিলে নিয়ে জিম্মি করে রাখেন।

আলমগীরের স্ত্রী হাসিনা বেগম জানান, আমার স্বামী রবিবার সকালে বাড়ি থেকে অফিসে যায়। বিকেলে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পওে রাত সাড়ে ৭টার দিকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন থেকে কল করে আমাকে বলে আমি সমস্যায় আছি কারোর কাছ থেকে টাকা নিয়ে আমাকে তাড়াতাড়ি ২ লাখ টাকা পাঠাও। এছাড়া ঐ মোবাইল ফোন থেকে আমার স্বামী আত্মীয়-স্বজনদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে সর্বমোট ঐ নম্বরে ৩৫ হাজার ৫শ টাকা পাঠাই। পরে তারা আমার স্বামীকে সাথে নিয়ে মোবাইলের দোকান থেকে টাকা তুলতে গেলে আমার স্বামীর ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে রাকিবকে হাতেনাতে ধরে ভূঞাপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে এবং রাজু পালিয়ে যায়।

এমতাবস্থায় আলমগীরের কোনো সন্ধান না পেয়ে তার ভাই মাহমুদুল হাসান তালুকদার (লাল মিয়া) ভূঞাপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় রবিবার রাতে ঢাকা থেকে রাজুকে আটক করে।

ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আহসান উল্লাহ জানান, এ ব্যাপরে ভূঞাপুর থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধারণা করা হচ্ছে এই চক্রের সাথে আরও একাধিক ব্যক্তি জড়িত আছে। তাই আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে। এছাড়া আটককৃতদের টাঙ্গাইল জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840