ভূঞাপুর যমুনা নদী থেকে ২৬টি বোয়াল ধরেছে স্থানীয়রা

ভূঞাপুর যমুনা নদী থেকে ২৬টি বোয়াল ধরেছে স্থানীয়রা

প্রতিদিন প্রতিবেদক ভূঞাপুর : ভূঞাপুরে যমুনা নদীতে ১৫-২০ কেজি ওজনের ২৬ টি বোয়াল মাছ ধরেছে স্থানীয়রা।

শনিবার (২০ জুন) সকালে উপজেলার কালিপুর এলাকায় মাছ ধরার সময় স্থানীয়দের জালে এই বোয়াল মাছ গুলো ধরা পরে। তারা কাঁধে করে মাছগুলো বাড়িতে নিয়ে আসে।

সকালে বড় আকারের এতো গুলো বোয়াল মাছ আসার খবর ছড়িয়ে পড়লে তা এক নজর দেখার জন্য মানুষের ভিড় জমে যায়।

ইদানিং বড় আকারের মাছ সব সময় পাওয়া যায় না। মাছ গুলো দেখে অনেকেই দরদাম করতে থাকেন। কিন্তু মাছ গুলো বিক্রি না করে ভাগ বাটোয়ার করে নেওয়া হয়।

খানুরবাড়ী গ্রামের জয়েন আলী জানান,অনেক দিন ধরেই মৎস্য শিকার করে আসছেন। শুক্রবার দিবাগত রাতে আমরা ১৭ জন লোক শখের বশে যমুনা নদীর কালিপুর গ্রামে আষাঢ়ে বোয়াল ধরার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। মাছ ধরার সরঞ্জামাদি নিয়ে নদীতে ওঁত পেতে থাকি। পরে কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে একে একে ২৬ টি বোয়াল মাছ ধরতে সক্ষম হই।

মাছ ব্যবসায়ী নির্মল হাওলাদার জানান, মাঝেমধ্যে যমুনা নদীতে বড় বড় বোয়াল মাছ ধরা পড়ছে। তবে এত বড় এবং এতগুলো বোয়াল মাছ কমই ধরা পড়ে।

উৎসুক জনতার একজন আনোয়ার জানান, সাধারণত দুই-তিন কেজি ওজনের অনেক বোয়ালই দেখা যায়। এত বড় এবং এতো গুলো একত্রে এইগুলো বোয়াল মাছ দেখে তিনি বেশ অবাক হয়েছেন।

উপজেলা মৎস্য অফিসার ডঃ মোঃ হাফিজুর রহমান জানান, আমরা মাছে ভাতে বাঙালি। এতো গুলো বোয়াল মাছ ধরার খবর টা খুবই আনন্দদায়ক । বাংলাদেশ মৎস্য অধিদপ্তর থেকে বিভিন্ন নদ নদীর মাছ সংরক্ষণের জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করায় পর্যাপ্ত মাছ ধরা পড়ছে। যমুনায় একসাথে এতগুলো মাছ ধরা পড়ায় জনগণ খুব খুশি।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840