মির্জাপুরে ঝুঁকিপূর্ণ সাঁকো দিয়ে পারাপার হচ্ছে ছয় গ্রামের মানুষ

মির্জাপুরে ঝুঁকিপূর্ণ সাঁকো দিয়ে পারাপার হচ্ছে ছয় গ্রামের মানুষ

প্রতিদিন প্রতিবেদক মির্জাপুর: মির্জাপুরের জামুর্কী ইউনিয়নের পাকুল্যা পশ্চিমপাড় খালের ওপর নির্মিত ঝুঁকিপূর্ন কাঠের সাঁকো দিয়ে শিক্ষার্থীসহ ছয় গ্রামের হাজারো মানুষ প্রতিদিন পারাপার হচ্ছেন। এতে যে কোন সময় দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

জানা গেছে, পাকুল্যা পশ্চিমপাড়া ওই খালটির ওপর কাঠের সাঁকোটি গত এক বছর আগে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে নির্মিত হয়। কিন্ত ইতিমধ্যেই তা চলাচলে ঝুঁকিপুর্ন হয়ে পড়েছে। ঝুঁকিপুর্ন এই সেতুটি দিয়ে জামুর্কী ইউনিয়নের চরপাকুল্যা ও পাকুল্যা বাদ্যকর পাড়ার লোকজন ছাড়াও পার্শবর্তী দেলদুয়ার উপজেলার মৈষ্টা, আরমৈষ্টা, কামান্না, কামান্না চরপাড়া, বড়মৈষ্টা গ্রামের কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ হাজারো মানুষ প্রতিদিন যাতাযাত করে থাকে।

সাঁকোটির এই দুর্বস্থার কারণে যে কোন সময় দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানান। পাকুল্যা বাজারের ব্যবসায়ী তপন শেট, কবি ও লেখক গোপাল কর্মকার বলেন, ঝুঁকিপুর্ন এই সাঁকো দিয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ শতশত মানুষ খুব ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হয়ে থাকে। ঝুঁকিপুর্ন এই সাঁকোটিতে যে কোন সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে তারা জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে জামুর্কী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী এজাজ খান চৌধুরী রুবেল বলেন, সাঁকুটি যে পারাপারে ঝুঁকিপুর্ন হয়ে পড়েছে তা উপজেলা পরিষদের সভায় ওইস্থানে একটি পাকা সেতু নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840