সংবাদ শিরোনাম:
রংপুরে শুরু হয়েছে শেখ হাসিনা অনুর্ধ্ব-১৫ টি টোয়েন্টি প্রমীলা ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ঘাটাইল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চশমা প্রতীক নিয়ে সাংবাদিক আতিক জনপ্রিয়তায় শীর্ষে ও জনসমর্থনে এগিয়ে ঘাটাইলে সেলাই মেশিন মার্কায় ভোট চাইলেন পৌর মেয়র আব্দুর রশীদ মিয়া টাঙ্গাইলে পুটিয়াজানী বাজারে দোকান ঘর ভাঙ্গচুরের অভিযোগ দেবরের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জে ২১৬ কেজি গাঁজাসহ আটক ২ ; কাভার্ড ভ্যান জব্দ সাফল্য অর্জনেও ব্যতীক্রম নয় জমজ দুই বোন,  লাইবা ও লামিয়া দুজনেই পেলেন জিপিএ- ৫ নাগরপুরে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার রাজপথে, প্রতিবাদ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত এক স্কুল থেকে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল জমজ দুই বোন মির্জাপুরে ধান চাল সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন টাঙ্গাইলে মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানের গার্ল-ইন- স্কাউটের সদস্যদের ডে ক্যাম্প
শিশু আব্দুল্লাহকে বাঁচাতে সাহায্যের প্রয়োজন

শিশু আব্দুল্লাহকে বাঁচাতে সাহায্যের প্রয়োজন

প্রতিদিন প্রতিবেদক মির্জাপুর: মির্জাপুরে আড়াই বছরের শিশু আব্দুল্লাহকে বাঁচাতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন। তার হার্টের তিনটি ছিদ্র নিয়ে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে। জন্মের ৬ মাসের মাথায় কুমুদিনী হাসপাতালে রোগ শনাক্ত হলে একমাত্র শিশু পুত্রকে বাচাঁতে ঢাকা শিশু হাসপাতাল, ফজিলাতুননেছা, খাজা ইউনূস আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ একাধিক হাসপাতালে চিকিৎসা করান। কিন্ত ওইসব হাসপাতালের চিকিৎসকগণ পরামর্শ দেন ভারতে নেয়ার। তারা জানান ভারতে চিকিৎসা করাতে প্রাথমিক ভাবে সাড়ে ৫ লাখ টাকা খরচ হবে।

আব্দুল্লাহ বাবা ক্ষুদ্র মুদি দোকানী কাবেল সিকদার শিশুপুত্রের চিকিৎসার জন্য দোকানের মালামাল ও বাড়ির ৪ শতাংশ জমির ২ শতাংশ বিক্রি করেন।
গত জুন মাসে ভারতের চেন্নাইয়ে নারান হাসপাতালে নিয়ে ছেলের হার্টের অপারেশন করান।চিকিৎসকরা কয়েক সপ্তাহ পর আবারও আব্দুল্লাহকে ভারত নিয়ে যেতে বলেছেন।

কিন্তু শিশু আব্দুল্লাহ দরিদ্র পিতা-মাতার পক্ষে এখন আর ছেলের চিকিৎসা ব্যয় বহন করা সম্ভব হচ্ছে না।হার্টে ছিদ্র আক্রান্ত শিশু আব্দুল্লাহ মির্জাপুর উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের ছাওয়ালী গ্রামের দরিদ্র মুদি দোকানদার কাবেল সিকদার ও হেলেনা বেগমের ছেলে।

আব্দুল্লাহ বাবা কাবেল সিকদার জানান, স্ত্রী ১০ বছরের মেয়ে এবং শিশুপুত্র আব্দুল্লাহকে নিয়ে সুখেই কাটছিলে তাদের সংসার। কিন্তু গত দুই বছর ধরে তার শিশু পুত্রের হার্টের চিকিৎসা করাতে গিয়ে দোকান ও বাড়ির জমি বিক্রি করতে হয়েছে।

এছাড়া আত্মীয় স্বজনের কাজ থেকে ধার-দেনা করে সর্বস্ব হারা হয়েছি। তিনি আবেগ জড়িত কণ্ঠে বলেন এখন হয়তো টাকার অভাবে আর চিকিৎসা করা সম্ভব হবে না। এমতাবস্থায়, শিশুপুত্র আব্দুল্লাহকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সমাজের সকল হৃদয়বান ও দানশীল ব্যক্তির আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন তার অসহায় মা-বাবা।

চিকিৎসায় সহযোগিতা দিতে সরাসরি যোগাযোগ করুন শিশু আব্দুল্লাহ মা হেলেনা বেগমের এই মোবাইল নম্বরে ০১৭৫৯৬৩৯৯৮১

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840