সংবাদ শিরোনাম:
সখিপুরে সড়কে গাছ ফেলে ডাকাতির চেষ্টা।আটক দুই

সখিপুরে সড়কে গাছ ফেলে ডাকাতির চেষ্টা।আটক দুই

প্রতিদিন প্রতিবেদক সখিপুর: রাস্তায় গাছ ফেলে ডাকাতির চেষ্টাকালে মো. শামীম আহমেদ ওরফে ফরিদ (৩৫) এবং আল-আমীন (৩১) নামের দুই আন্তঃজলা ডাকাত দলের সদস্যকে গ্রেফতার করেছে সখিপুর থানা পুলিশ।

শনিবার ভোর রাত ৩.১০ মিনিটে উপজেলার নলুয়া-টাঙ্গাইল সড়কের নলুয়া বুড়ি বাইদ ব্রীজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত পিকআপ ভ্যান (ঢাকা মেট্রো-ন-১৭-৯৭৯৭) এবং দুটি চাপাতি ও দুটি লোহার রড উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় রাতেই এসআই আয়ুব আলী বাদী হয়ে সখিপুর থানায় ডাকাতির চেষ্টার মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শনিবার এসআই আয়ুব আলীর নেতৃত্বে সিএনজি যোগে ৫ পুলিশ সদস্য রাতের টহলে বের হন। টহলের এক পর্যায়ে ভোর রাত ৩.১০ মিনিটে নলুয়া- টাঙ্গাইল সড়কের বেড়বাড়ী বুড়ি বাইদ ব্রীজের কাছে পৌঁছলে রাস্তার দু’পাশ থেকে গাছ ফেলে ১৩/১৪ সদস্যের একদল ডাকাত তাদেরকে যাত্রী ভেবে গতিরোধ করে।

এ সময় পুলিশের পোশাক দেখে তারা দৌড়ে পালাবার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদেরকে লক্ষ করে ১০ রাউন্ড গুলি ছুড়েন। এক পর্যায়ে ডাকাতরা তাদের ব্যবহৃত পিকআপ ভ্যানে ওঠে পালাবার চেষ্টা করলে পুলিশ গুলি করে পিক-আপ ভ্যানের চাকা ফুটো করে দেয়।

এসময় ডাকাতরা দৌড়ে পালাবার চেষ্টা কালে বাসাইল উপজেলার কাশিল গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে মো. শামীম আহমেদ (৩৫) এবং ভূয়াপুর উপজেলার কষ্টাপাড়া গ্রামের আবদুর রশিদের ছেলে আল-আমীন (৩১) নামের দুই ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়।

খবর পেয়ে ওই রাতেই সখিপুর থানার ওসি মো. আমির হোসেন ও ওসি তদন্ত এএইচ এম লুৎফুল কবির ঘটনাস্থলে গিয়ে রাস্তা থেকে গাছ অপসারণ করে চলাচল স্বাভাবিক করে দেন।

সখিপুর থানার ওসি (তদন্ত) এএইচ এম লুৎফুল কবির বলেন- রাস্তায় গাছ ফেলে ডাকাতির চেষ্টাকালে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য মো. শামীম আহমেদ এবং আল-আমীনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে। জিঙ্গাসাবাদ শেষে ওই দুই ডাকাততে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে। বাকী ডাকাতদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840