কালিহাতীতে তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা

কালিহাতীতে তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা

মনির হোসেন কালিহাতী : কালিহাতীতে ৩য় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে আনোয়ার হোসেন নামের এক আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে কালিহাতী থানায় অভিযুক্ত আনোয়ারকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছে ওই ছাত্রীর পিতা।

ওই ছাত্রী এলেঙ্গায় একটি মাদ্রাসায় ৩য় শ্রেণীতে লেখাপড়া করে। তার বাবা এলেঙ্গাতে বাসা ভাড়া করে ব্যবসা করে আসছে। তারা শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার বাসিন্দা।

অভিযুক্তকারী আনোয়ার হোসেন নেত্রকোনা জেলার তেতুলিয়া গ্রামের মাহবুব আলমের ছেলে। এলেঙ্গা বাসা ভাড়া নিয়ে হোটেল ব্যবসা করে আসছে।

ছাত্রীর বাবা জানান, আমি এলেঙ্গাতে বাসা ভাড়া নিয়ে একটি সেলুন ব্যবসা করে আসছি। বখাটে আনোয়ারের পরিবার আমাদের পাশবর্তী বাসায় ভাড়া থাকে। সম্প্রতিতে আমার মেয়েকে আনোয়ার তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণে চেষ্টা করে।

এসময় আমার মেয়ে চিৎকার করলে আমার স্ত্রী ও প্রতিবেশীরা এগিয়ে গেলে অভিযুক্ত আনোয়ার পালিয়ে যায়। আমি থানায় মামলা করতে যাবো শুনে স্থানীয় মাতাব্বররা আমাকে মিমাংসায় বসতে বাধ্য করে। শালিসে ৪০হাজার টাকা জরিমানা করে ২০হাজার টাকা মাতাব্বররা নিয়ে যায়।

মশাজান গ্রামের স্থানীয় মাতাব্বর আব্দুল জলিল মিমাংসার বিষয়টি শিকার করে জানান,ছেলে মেয়ে নাবালক হওয়ায় মীমাংসা করে দেয়া হয়।

কালিহাতী থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেন জানান, ২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুরে অভিযুক্তকারী আনোয়ারকে আটক করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840