সংবাদ শিরোনাম:
ধনবাড়ীতে প্রাইভেটকার চাপায় নিহত ১ আহত ৪ ভূঞাপুরে ৩৭টি পূজা মন্ডপে পৌর মেয়রের আর্থিক অনুদান টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর সম্পাদক রৌফ সাফ জয়ী কৃষ্ণা রানী সরকার ও কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটনকে সংবর্ধনা দিয়েছে টাঙ্গাইল জেলা ক্রীড়া সংস্থা ভাসানীর মাজারে ন্যাপ ভাসানীর পুষ্পস্তবক অর্পণ গোপালপুরে কৃষ্ণাকে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সংবর্ধনা নাগরপুরে এবারের দুর্গোৎসব হবে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় বজ্রপাত প্রতিরোধে বাতিঘর আদর্শ পাঠাগারের উদ্যোগে তালবীজ বপন বিএনপির মিথ্যাচার করে দেশে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করছে -কৃষিমন্ত্রী হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জনকারী তাকরীমকে সংবর্ধনা
টাঙ্গাইলে লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে প্রশাসন

টাঙ্গাইলে লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে প্রশাসন

প্রতিদিন প্রতিবেদক : কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে টাঙ্গাইলে মাঠে নেমেছে জেলা প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসন। সোমবার (২৬ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শহরের নিরালা মোড় এলাকায় যৌথ উদ্যোগে এক অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় বিনা কারণ ছাড়াই ঘরের বাইরে বের হওয়া মানুষদের সচেতন এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জনসচেতনা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। এ সময় কয়েকজনকে জরিমানাও করা হয়।

অভিযানের সময় জেলা প্রশাসক আতাউল গণি, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) সৈয়দ মাহমুদ হাসান, টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র সিরাজুল হক আলমগীর, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক রফিকুল ইসলামসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক আতাউল গণি সাংবাদিকদের বলেন, লকডাউন বাস্তবায়নে জেলা পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি, সেনাবাহিনী, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ সকলের সহযোগিতায় কাজ করা হচ্ছে। পুলিশের ৬ শতাধিক সদস্য, কয়েক প্লাটুন সেনাবাহিনী, ৩ প্লাটুন বিজিবি, র‌্যাব ৩ প্লাটুন এবং জেলা ২৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছে। জনসমাগম হয় এমন এলাকায় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এসব ব্যবস্থা নেয়ার ফলে বর্তমানে করোনায় মৃত্যুর হার কমে এসেছে। মানুষ যদি ধৈর্য সহকারে আর কিছু দিন কঠোর লকডাউন মানে তাহলে টাঙ্গাইল জেলা করোনা মুক্ত হবে বলে তিনি মনে করেন। তিনি আরো বলেন, লকডাউন ফলে কর্মহীন হয়ে পড়া ব্যক্তিদের সহায়তা অব্যহত রয়েছে। প্রকৃত সুস্থ এবং অসহায় ব্যক্তিরা এ সহযোগিতা পাবেন।

পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় বলেন, কঠোর লকডাউন নিশ্চিতে ৪৫টি স্থানে পুলিশের চেক পোস্ট বসানো হয়েছে। এসব চেক পোস্টে লকডাউন নিশ্চিতে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকেই যেতে দেখা হচ্ছে না। লকডাউন অমান্যকারীদের জরিমানা করা হচ্ছে। মূলক জনগণ সচেতন হলে করোনা বিস্তাররোধ করা সম্ভব হবে। করোনা বিস্তাররোধ সরকারের পক্ষ থেকে সে সিদ্ধান্ত আসবে সেই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে জেলা পুলিশ বদ্ধ পরিকর। আশা করছি আগের মতো এবার আমরা করোনা নিয়ন্ত্রণ রাখতে ভূমিকা রাখতে পারবো। তিনি আরো বলেন, করোনা ভাইরাসের শুরু থেকেই পুলিশ সদস্যরা তাদের জীবনের মায়া ত্যাগ করে কাজ করছে। যতক্ষন পর্যন্ত করোনা বিস্তার রোধ করা যাবে না ততক্ষণ পর্যন্ত পুলিশ মাছে কাজ করবে। আমাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840