সংবাদ শিরোনাম:
বাসাইলে পানিতে ডুবে স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু কালিহাতীতে বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ধনবাড়ীতে সিএনজি’র দখলে সড়ক, জনদুর্ভোগ চরমে টাঙ্গাইলে ২৮ লাখ টাকার ক্রিস্টাল ম্যাথ ও ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ সখীপুরে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ধর্মীয় নেতাদের করণীয় শীর্ষক আলোচনা ত্রাণ নিয়ে সিলেট যাচ্ছেন ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা টাঙ্গাইলে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকদের মানববন্ধন ভুয়া চিকিৎসক আটক, তিন মাসের কারাদন্ড টাঙ্গাইলে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি, পানিবন্দি লাখো মানুষ মাভাবিপ্রবিতে ‘ক্রাইম, ভিক্টিম্স এবং জাস্টিস’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত
কঠোর সর্তক বার্তা পুলিশের, স্কুল-কলেজের পাশে বখাটেদের পেলেই গ্রেফতার

কঠোর সর্তক বার্তা পুলিশের, স্কুল-কলেজের পাশে বখাটেদের পেলেই গ্রেফতার

বিশেষ প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলে উঠতি বয়সী তরুণ-যুবক বখাটেদের উৎপাত বেড়েই চলছে। ছোট-খাট চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই করাসহ তারা জড়িয়ে পড়ছে নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকা-ে। বিশেষ করে স্কুল-কলেজ, মাদসারার সামনে ও রাস্তা-ঘাটে তরুণ বখাটের উৎপাতে এসব কিশোর গ্যাং সক্রিয় হয়ে উঠেছে।

তারা দলবদ্ধ হয়ে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রীদের যাওয়া আসার পথে ইভটিজিং, প্রেমের প্রস্তাব এবং কু-প্রস্তাবও দিয়ে থাকে। আর এসবে রাজি না হলে অহরণ করার কান্ডে জড়িয়ে পড়েছেন তারা। সম্প্রতি উপজেলার নিকরাইল ইউনিয়নের সিরাজকান্দি দাখিল মাদরাসা ছাত্রীদের মাদরাসায় আসা যাওয়ার পথে স্বপন ও সাগরসহ বেশ কয়েকজন বখাটের শিকার হয় ওই মাদসার ছাত্রীরা। শুধু তাই নয়, ছাত্রীদের কমনরুমেও বখাটেরা উঁকিঝুঁকি দেয়। এনিয়ে মাদরাসার এক শিক্ষক প্রতিবাদ করলে উল্টো সেই শিক্ষকের উপর হামলা চালিয়ে লোহার রড ও ক্রিকেট খেলার স্ট্যাম্প পিটিয়ে আহত করেন বখাটেরা। এর আগে গত ৫ মে উপজেলার গাবসারা ইউনিয়নের বানিয়াবাড়ি এলাকায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে যায় নাজমুল প্রধানের ছেলে ফারুক শেখ (১৯)। পরে তাকে সিরাজগঞ্জের এক আত্মীয় বাড়িতে রেখে দফায় দফায় ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় (৭ মে) ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ভূঞাপুর থানায় ধর্ষণ ও অপহরণের মামলা দায়ের করলে অভিযুক্ত ফারুকসহ তার সহযোগী বিশাল হোসেনকে (২০) গ্রেপ্তার করে ভূঞাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) ফাহিম ফয়সাল। পরে (৮ মে) তাদেরকে টাঙ্গাইল আদালতে প্রেরণ করা হয়। বখাটেদের এমন চিত্র নজরে আসে ভূঞাপুর থানা পুলিশের। এসব অপরাধমূলক কর্মকা-রোধে ও গণসচেতনতার লক্ষ্যে ব্যতিক্রমী এক উদ্যোগ নিয়েছেন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর থানা পুলিশ। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাঁটিয়ে দিয়েছেন সতর্কতামূলক পোস্টার।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বিকেল ও শুক্রবার (১০ জুন) সকালে উপজেলার গোবিন্দাসী উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই পাশের গেটে গিয়ে এমনই একটি সর্তকমূলক বার্তার লিফলেট দেখা গেছে। পুলিশেরর পক্ষ থেকে সাঁটানো কঠোর সর্তক বার্তায় লেখা রয়েছে- স্কুল-কলেজ ও মাদরাসায় সময়ে বা ছুটি হওয়ার সময়ে যেকোন স্কুলের পাশে ও দোকানে আড্ডা দেওয়া এবং অহেতুক ঘোরাফেরা সম্পূর্ণ নিষেধ। ছাত্র-ছাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য আজ থেকে যদি কোনো স্কুল-কলেজ বা মাদরাসার সামনে বখাটে ছেলে পাওয়া যায় তাহলে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে আইগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ বিষয়ে শিক্ষার্থীরা জানান, রাস্তা-ঘাটে বা স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে বখাটে অনেক ছেলেরা উক্ত্যক্ত ও ইভটিজিংমূলক আচরণ করে থাকে। তাদের এমন অপরাধমূলক কা-ে প্রতিবাদ করতে গেলেও অপহরণ বা ধর্ষণের শিকার হতে হয়। তাই অনেক কিছু সহ্য করে মেনে নিয়ে স্কুলে আসা-যাওয়া হয়। তারা আরও জানান, কিন্তু বেশ কয়েকদিন ধরে স্কুলের গেটে পুলিশের সর্তকমূলক লিফলেট সাঁটানোর বিষয়টি সময়োপযোগী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে পুলিশ। এতে করে বখাটের উৎপাত কমে আসবে।

অভিভাবকরা জানান, পুলিশের এমন উদ্যোগকে আমরা সাধুবাদ জানাই। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিয়ে পুলিশ তৎপর হলে বখাটেরা আর মেয়েদের ইভটিজিং করার সাহস পাবেনা। ভূঞাপুর থানার ওসিকে ধন্যবাদ জানান তারা।

এ ব্যাপারে ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম জানান, বখাটেদের অপরামূলক কর্মকা-রোধে এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রথমে গোবিন্দাসী উচ্চ বিদ্যালয়ে সাঁটানো হয়েছে। বিট পুলিশিং মাধ্যমে স্কুলে স্কুলে গণসচেতনতার লক্ষ্যে পথসভা করা হবে।
তিনি আরও জানান, সর্তকমূলক বার্তা লিফলেট উপজেলার প্রতিটি স্কুলেই দ্রুত সময়ের মধ্যে সাঁটানো ও পোস্টারিংয়ের উদ্যোগ নেয়া হবে। এছাড়া বখাটেদের বিরুদ্ধে কেউ অভিযোগ করলে তাদের বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840