সংবাদ শিরোনাম:
কলেজ শিক্ষিকাকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগ ভিপির বিরুদ্ধে

কলেজ শিক্ষিকাকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগ ভিপির বিরুদ্ধে

tangail-pratidin

প্রতিদিন প্রতিবেদক নাগরপুর: নাগরপুর সরকারি কলেজের শিক্ষিকাকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর এ অভিযোগ উঠেছে খোদ ওই কলেজের সাবেক ভিপির বিরুদ্ধে। এঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। মামলায় কলেজের সাবেক ভিপি ও কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আল-মামুনসহ তিনজনকে আসামী করা হয়েছে।

অপর আসামীরা হলো উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাদিকুর রহমান বিপ্লব ও মাইক্রোবাস চালক বাবু।এ ঘটনায় শুক্রবার (২০ মার্চ) সকালে মামলার অন্যআসামী বাবুকে গ্রেফতার করেছে নারপুর থানা পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নাগরপুর সরকারি কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক শামীমা ইয়াসমিন বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) রাতে চশমা মেরামত করতে গেলে দোকানে কাউকে না পেয়ে দাড়িয়ে থাকেন। এসময় বাইকে করে সাবেক ভিপি মামুন দোকানে এসে বসলে শিক্ষিকা তাকে দোকানদারের কথা জিজ্ঞেস করলে শিক্ষিকাকে মামুন টিজমূলক কথা বলেন। শিক্ষিকা টিজের প্রতিবাদ করলে বাবু ও বিপ্লব এগিয়ে এসে মামুনের সাথে যুক্ত হয়ে শিক্ষিকাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে, মারতে উদ্যত হয় এবং টান দিয়ে মুখের হিজাব খুলে ফেলে।

এব্যাপারে ঘটনার স্বীকার কলেজ শিক্ষিকা শামীম ইয়াসমিন বলেন, যেখানে আমি একজন সরকারি কর্মকর্তা হয়েও নিরাপদ নই তাহলে সাধারন মেয়েদের অবস্থার কথা একবার চিন্তা করুন। আর আমি এজন্যই এদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করছি।

এ ব্যাপারে ভিপি আল-মামুন ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য ষড়যন্ত্রমূলক এ মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বলেন, নাগরপুর সরকারি কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক শামীমা ইয়াসমিন শ্লীলতাহানীর অভিযোগ এনে সাবেক ভিপি মামুন সহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলে ১জনকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840