সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের পাঠাগারে বেলা’র বই প্রদান টাঙ্গাইলে সাংবাদিকদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে সকালে যানজট বিকেলে স্বাভাবিক ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের এলেঙ্গা থেকে সেতু পূর্ব পাড় পর্যন্ত বেড়েছে যানবাহনের চাপ, চলছে ধীর গতিতে সখীপুরে জেলা প্রশাসকের অর্থায়নে আশ্রয়ণ প্রকল্পে বৈদ্যতিক পাখা বিতরণ মধুপুরে মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার রোধে কর্মশালা মেয়াদোত্তীর্ণ ভ্যাকসিনে ১৪০০ হাঁসের মৃত্যু, অভিযোগ খামারীর ইয়াবাসহ মাদক কারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে আনন্দ শোভাযাত্রা গোপালপুরে বিদ্যুৎপৃষ্টে যুবক নিহত
টাঙ্গাইলে খাবারের সন্ধ্যানে বনের হরিণ লোকালয়ে

টাঙ্গাইলে খাবারের সন্ধ্যানে বনের হরিণ লোকালয়ে

প্রতিদিন প্রতিবেদকঃ বনাঞ্চলে শুস্ক মৌসুমে খাবার সংকট দেখা দেওয়ায় বনের হরিণ খাবারের সন্ধ্যানে লোকালয়ে ছুটে আসার খবর পাওয়া যায় প্রায়ই। এরইধারাবাহিকতায় টাঙ্গাইলের মির্জাপুর থেকে একটি বন্য হরিণ উদ্ধার করা হয়।
বুধবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় স্থানীয়দের উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়রেন পারদিঘী গ্রাম থেকে হরিণটি উদ্ধার করেন স্থানীয় বাঁশতৈল বনবিভাগের লোকজন।
ফতেপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ জানান, বিকালে পাশের সুতানড়ি গ্রামের লোকজন চিত্রা হরিণটি দেখতে পান। তারা হরিণটি দৌড়ে ধরার চেষ্টা করেন। কিন্তু তাদের তাড়া খেয়ে হরিণটি পারদিঘী গ্রামে ছুটে আসে।
তিনি আরও জানান, ওই গ্রামের লোকজন ঘেরাও দিয়ে হরিণটি ধরে বনবিভাগের লোকজনকে খবর দেয়। খবর পেয়ে বাঁশতৈল রেঞ্জ অফিসার আশরাফুল ইসলামের নেতৃত্বে বনবিভাগের একটি দল পারদিঘী গ্রামে এসে হরিণটি উদ্ধার করেন। হরিণটি এক নজর দেখতে আশপাশের লোকজন ভিড় করেন।
এ বিষয়ে বাঁশতৈল রেঞ্জ কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম জানান, বর্তমানে শুস্ক মৌসুম চলছে। এই সময়ে মধুপুর বনাঞ্চলে হরিণের খাবার সংকট দেখা দিয়েছে। যে কারণে হরিণ বন থেকে লোকালয়ে এসে থাকতে পারে বলে তিনি ধারণা করছি।চিত্র জাতের এই হরিণটি ওজন প্রায় ৩০ কেজি। স্থানীয় লোকজন দৌড়ি ধরতে গিয়ে হরিণটি শিং এ আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে।
টাঙ্গাইল সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ এমরান আলী জানান, বাঁশতৈল এলাকা থেকে বনবিভাগের একটি দল পারদিঘী গ্রামে এসে হরিণটি উদ্ধার করে আমাদের কাছে হস্তান্তর করেন।
আমরা হরিণটি বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে মধুপুর জাতীয় উদ্যানে লোহরিয়া হরিণ প্রজনন কোল্পে ছেড়ে দেই।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840