টাঙ্গাইল প্রশাসনের উদ্যোগে প্রায় শতাধিক ড্রেজার ধ্বংস।সাধুবাদ এলাকাবাসীর

টাঙ্গাইল প্রশাসনের উদ্যোগে প্রায় শতাধিক ড্রেজার ধ্বংস।সাধুবাদ এলাকাবাসীর

প্রতিদিন প্রতিবেদক: অবৈধ মাটি খেকো ও ড্রেজার ব্যাবসায়ীদের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল প্রশাসন ব্যাপক ভূমিকা পালন করছেন। প্রতিনিয়ত সদরের বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে প্রায় শতাধিক ড্রেজার পুড়িয়ে দিয়েছেন। একই সাথে এ সব অবৈধ ড্রেজার পরিচালনাকারী ও মাটি ব্যবসায়ীদের কয়েক লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। টাঙ্গাইল সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট উপমা ফারিসা এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

এসময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন। পর্যায়ক্রমে এ অভিযান টাঙ্গাইল সদরের ব্যাপক সারা জাগিয়েছে। প্রশাসনের এ অভিযানকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন নদী সংলগ্ন বসবাসকারী ভূক্তভোগী খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ। নদী ভাঙ্গন ও ফসলি জমি রক্ষার্থে সদর সহ প্রতিটি উপজেলায় পর্যায়ক্রমে এ অভিযান অব্যাহত রাখার জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে অনুরোধ জানিয়েছেন নদী সংলগ্ন বসবাসকারীরা। টাঙ্গাইল সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট উপমা ফারিসা জানান, টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলাম-এর নির্দেশে সদর উপজেলার দাইন্যা, বাঘিল, পোড়াবাড়ী ও ঘারিন্দা ইউনিয়নে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

এসময় ১৪টি ড্রেজার ও ১৪ কিলোমিটার পাইপ পুড়িয়ে দেয়া হয়। একই সাথে দুই জনকে এক লক্ষ ও অপরজনকে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। জরিমানার টাকা সরকারী কোষাগারে জমা করা হয়েছে। এছাড়াও গত দুই মাসে সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৫৫টি অবৈধ ড্রেজার পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের তথ্য মতে, সদর উপজেলার দাইন্যা, বাঘিল ও পোড়াবাড়ী ইউনিয়নে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় নয়টি ড্রেজার ও ১৪ কিলোমিটার পাইপ পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। পরদিন পোড়াবাড়ী ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে দুই জন ড্রেজার ব্যবসায়ী অবৈধ ভাবে মাটি উত্তোলনের দায়ে খারজানা গ্রামের মোঃ কাদের জোয়ার্দার (৪৫) ও কেন্দুয়া গ্রামের মোঃ সাইফুল ইসলাম (৪২) কে পঞ্চাশ হাজার টাকা করে মোট এক লক্ষ টাকা আর্থিক জরিমানা করা হয়।

এরপর একই কারণে পোড়াবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের ছেলে শরিফকে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। বুধবার ঘারিন্দা ইউনিয়নের বীরনাহালি গ্রামের এলাংজানী নদীতে অভিযান চালিয়ে পাঁচটি ড্রেজার পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি ইউনিয়নে ড্রেজার দিয়ে অবৈধ মাটি উত্তোলনের অভিযান চলবে বলে জানা যায়

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840