টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের দুই জনসহ নিহত ৬, আহত ১৫

টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের দুই জনসহ নিহত ৬, আহত ১৫

বিশেষ প্রতিবেদক: ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব টোল প্লাজার অদূরে বাস-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে একই পরিবারের তিনজনসহ ৬ জন নিহতের ঘটনা ঘটেছে। আজ বুধবার দুপুরে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

এঘটনায় নিহতরা হলেন, মাইক্রোবাস চালক কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলার কুটুম্বপুর গ্রামে মৃত ফজলুল হকের ছেলে দুলাল হোসেন (৫২), সহকারি একই এলাকার জগল চন্দ্র শীলের ছেলে সুশীল চন্দ্র শীল (৪৫), বাসের যাত্রী বগুড়া সদর উপজেলার জলেশ্বরীতলা জজকোর্ট এলাকার হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী মালিকা বানু রুবি (৬৫) ও ছেলে রিফাত আল হাসান (৪০)। বাস যাত্রী বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন যশোর অঞ্চলের যুগ্ম-পরিচালক পাবনা জেলার বেড়া উপজেলার জোড়দহ এলাকার ইমতাজ আলী প্রামানিকের ছেলে মোঃ জহিরুল ইসলাম (৫৫) ও নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম উপজেলার আগ্রান গ্রামের আব্বাস আলীর ছেলে তাহসিন (৬)। এ ঘটনায় আহত হয়েছে কমপক্ষে ১৫ জন বাস যাত্রী। গুরুত্বর আহত না হওয়ায় তাদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, বিআরটিএ, ট্রাফিক পুলিশ, বিবিএ ও পুলিশের সমন্নয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান, রাজশাহী থেকে ঢাকাগামী একতা পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আইল্যান্ডের উপর দিয়ে গিয়ে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা উত্তরবঙ্গগামী একটি মাইক্রোবাসকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এ সময় ঘটনাস্থলে বাস যাত্রী এক নারী, দুই শিশু এবং মাইক্রোবাসের তিন যাত্রী মারা যায়। তিনি আরো জানান, হতাহতদের পরিচয় শনাক্ত করা হচ্ছে। মহাসড়ক থেকে দুর্ঘটনাকবলিত যানবাহনগুলো সরিয়ে নেয়া হয়েছে, যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

বাসযাত্রী মোছাঃ জান্নাতুল খাতুন জানায়, চাঁপাই থেকে সকাল সাড়ে সাতটায় একতা পরিবহনে ঢাকায় যাচ্ছিলাম। বঙ্গবন্ধু সেতুর উপরে বাসটি পৌঁছালে আমি ঘুমিয়ে পড়ি। পরে সেতুর পূর্ব পাড় এলাকায় বাসটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। মহুর্তের মধ্যে সব কিছু উলট পালট হয়ে যায়। এ অবস্থায় আমি অনেক ভয়ে ছিলাম। আমাকে একটি মেয়ে জরিয়ে ধরে ছিল। পরে আমি তাকে নিয়েই বাসের বাইরে বের হয়ে আসি। তখনও কেউ আসেনি আমাদের উদ্ধার করতে। পরে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও সেতুর লোকজন বাস থেকে বাকি লোকজনকে উদ্ধার করে।

পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার জানান, উত্তরবঙ্গ থেকে ছেড়ে আসা একতা পরিবহনের একটি বাস বঙ্গবন্ধু সেতু পার হওয়ার পর ব্রেক ফেল করে। এ সময় বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঢাকাগামী লেন থেকে আইল্যান্ড ভেঙ্গে উত্তরবঙ্গগামী লেনে গিয়ে মাইক্রোবাসটির সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে বাস ও মাইক্রোবাসের সামনের অংশ দুমরে মুচরে যায়। ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়। আহতদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে গাড়িতে দুইজনের মৃত্যু হয় ও হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও একজনের মৃত্যু হয়। এঘটনায় অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে।

জেলা প্রশাসক ড. আতাউল গণি বলেন, নিহত প্রতিটা পরিবারকে দাফন করার জন ২০ হাজার করে টাকা দিয়ে সহায়তা করা হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840