সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইলে ১৬ সরকারি প্রতিষ্ঠানে উড়ছে না জাতীয় পতাকা টাঙ্গাইলে ওয়ালটনের নন স্টপ মিলিয়নিয়ার অফার উপলক্ষে র‌্যালী কালিহাতীতে আওয়ামীলীগ-সিদ্দিকী পরিবার মুখোমুখি টাঙ্গাইলের তিন উপজেলায় মাঠ-ঘাট চষে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে বজ্রপাতে দুই ভাইয়ের মৃত্যু রংপুরে শুরু হয়েছে শেখ হাসিনা অনুর্ধ্ব-১৫ টি টোয়েন্টি প্রমীলা ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ঘাটাইল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চশমা প্রতীক নিয়ে সাংবাদিক আতিক জনপ্রিয়তায় শীর্ষে ও জনসমর্থনে এগিয়ে ঘাটাইলে সেলাই মেশিন মার্কায় ভোট চাইলেন পৌর মেয়র আব্দুর রশীদ মিয়া টাঙ্গাইলে পুটিয়াজানী বাজারে দোকান ঘর ভাঙ্গচুরের অভিযোগ দেবরের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জে ২১৬ কেজি গাঁজাসহ আটক ২ ; কাভার্ড ভ্যান জব্দ সাফল্য অর্জনেও ব্যতীক্রম নয় জমজ দুই বোন,  লাইবা ও লামিয়া দুজনেই পেলেন জিপিএ- ৫
টাঙ্গাইল সদরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মৃত্যু তিন

টাঙ্গাইল সদরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মৃত্যু তিন

প্রতিদিন প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের অবহেলায় প্রাণ গেল সোনা উল্লা (৬০) নামের এক কৃষক সহ সাদেক হোসেন (১৬) এবং পারভেজ (১৮) নামের দুই চাচাতো ভাইয়ের।

সাদেক কাতুলী ইউনিয়নের আব্দুল্লাহ পাড়া গ্রামের আব্দুল মিয়ার ছেলে ও পারভেজ একই গ্রামের হালেম মিয়ার ছেলে।

রোববার (২৬ মে) দুপুরে সদর উপজেলার হুগড়া ইউনিয়নের হুগড়া গ্রামে এবং সন্ধ্যায় কাতুলী ইউনিয়নের আব্দুল্লাহ পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় আহত হয় তার ছেলে সোহরাব আলী মোল্লা (৩৮)। নিহত সোনা উল্লা হুগড়া গ্রামের বাসিন্দা।

হুগড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন তোফা জানান, সোনা উল্লার বাড়ীতে দীর্ঘ দিন যাবৎ পল্লী বিদ্যুতের লিকেজকৃত তার ছিল। ভূলবশত সোনা উল্লা সেই তারে হাত দিতেই জড়িয়ে পড়ে।

পরে বাবাকে বাঁচাতে ছেলে সোহরাব আলী মোল্লা এগিয়ে গেলে তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ছিটকে পড়ে যান।

স্থানীয়রা তাদের দু’জনকেই উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সোনা উল্লাকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় আহত ছেলে সোহরাব আলী মোল্লা কে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

অপরদিকে কাতুলী ইউনিয়নের আব্দুল্লাহ পাড়া গ্রামবাসী জানান, কয়েক দিন পূবের্ প্রচন্ড ঝড়-বৃষ্টি হয়। এ সময় পল্লী বিদ্যুতের তার খুটি থেকে ছিড়ে সাদেকদের বাড়ীর পাশে পুকুরের পানিতে পরে ছিল।

ঘটনার দিন রোববার বিকেলে সাদেক মাছ ধরার জন্য তাদের বাড়ীর পাশের পুকুরে নামে এসময় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে চিৎকার শুরু করে। তাকের বাঁচাতে চাচাতো ভাই পারভেজ পুকুরে নামতেই সেও বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে চিৎকার করতে থাকে।

পরে বাড়ী ও াাশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে পুকুর থেকে বিদ্যুতের তার সরিয়ে তাদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় এলাকা সহ পুরো ইউনিয়নে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বিদ্যুৎ অফিসের অবহেলার জন্যই এ ঘটনা ঘটেছে বলে উল্লেখ করেন স্থানীয়রা।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840