সংবাদ শিরোনাম:
বাসাইলে পানিতে ডুবে স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু কালিহাতীতে বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ধনবাড়ীতে সিএনজি’র দখলে সড়ক, জনদুর্ভোগ চরমে টাঙ্গাইলে ২৮ লাখ টাকার ক্রিস্টাল ম্যাথ ও ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ সখীপুরে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ধর্মীয় নেতাদের করণীয় শীর্ষক আলোচনা ত্রাণ নিয়ে সিলেট যাচ্ছেন ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা টাঙ্গাইলে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকদের মানববন্ধন ভুয়া চিকিৎসক আটক, তিন মাসের কারাদন্ড টাঙ্গাইলে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি, পানিবন্দি লাখো মানুষ মাভাবিপ্রবিতে ‘ক্রাইম, ভিক্টিম্স এবং জাস্টিস’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত
ভূঞাপুরে নৌকার টিকেট পেতে নেতাকর্মীদের দৌড়ঝাপ

ভূঞাপুরে নৌকার টিকেট পেতে নেতাকর্মীদের দৌড়ঝাপ

প্রতিদিন প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান পদে নৌকার টিকেট পেতে একডজন নেতার দৌড়ঝাপ শুরু হয়েছে।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগের এসব নেতারা দলীয় মনোনয়ন পেতে শুভেচ্ছা পোস্টার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানান দিচ্ছেন নিজেদের প্রার্থীতা। যোগাযোগ রাখছেন কেন্দ্র ও জেলার নেতাদের সাথে। উঠান বৈঠকসহ বিভিন্ন আঙ্গিকে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের এই উপ-নির্বাচন আগামী ২ নভেম্বর।

এসব নিয়ে সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ভূঞাপুরের চায়ের দোকানগুলোতেও আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে।

উপ-নির্বাচনে কে পাচ্ছেন নৌকার টিকেট? নৌকার প্রতীকের জন্য যারা মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন, ইবরাহীম খাঁ সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম তালুকদার বিদ্যুত, সদ্য প্রয়াত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হালিমের সহধর্মিণী উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি ও লোকমান ফকির মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক নার্গিস আক্তার, ইবরাহীম খাঁ সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাহিনুল ইসলাম তরফদার বাদল, জেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নূরুল ইসলাম তালুকদার মোহন, জেলা পরিষদের সদস্য ও সাবেক কাউন্সিলর আজহারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক তাহেরুল ইসলাম তোতা, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিনহাজ উদ্দিন, নিকরাইল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোতালেব সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক জাহিদ শামস হুমায়ুনসহ একডজন মনোনয়ন প্রত্যাশী।

এদিকে, বিএনপি দলীয়ভাবে কাউকে মনোনয়ন না দিলেও গোবিন্দাসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান তালুকদার বাবলু গণসংযোগ শুরু করেছেন। যোগাযোগ রক্ষা করে যাচ্ছেন দলীয় নেতা কর্মীদের সঙ্গে। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে গণসংযোগ করছেন আলাউদ্দিন মিয়া তুলা।

আমিরুল ইসলাম তালুকদার বিদ্যুত বলেন, আমি ইবরাহীম খাঁ সরকারি কলেজের দুই দুইবার ভিপি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ভূঞাপুর পৌরসভার প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান (মেয়র) ছিলাম। রাজনীতির পেছনেই আমার জীবন উৎসর্গ করেছি। সবসময় জনগণের খেদমত করেছি। আমি পৌর চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক থাকাকালীন কেউ যদি আমার বিরুদ্ধে সামান্যতম দুর্নীতির অভিযোগ আনতে পারে রাজনীতি ছেড়ে দেবো। দল আমাকে মনোনয়ন দিলে, আমি যদি নির্বাচিত হতে পারি তাহলে বাকিটা জীবন জনগনের সেবা করে যাবো।

মনোনয়ন প্রত্যাশী নার্গিস আক্তার বলেন, আমার স্বামী টানা দুইবার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। ছাত্রজীবন থেকেই তিনি আওয়ামী লীগের নিবেদিত প্রাণ ছিলেন। মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত জনগণের পাশে থেকে তিনি সেবা করে গেছেন। আমি নিজেও আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে আসছি। আশা করি দল আমাকে মনোনয়ন দিবে। আমি নৌকা প্রতীক পেয়ে নির্বাচিত হলে আমার স্বামীর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করবো।

সাহিনুল ইসলাম তরফদার বাদল বলেন, ছাত্র জীবন থেকেই দলের জন্য শ্রম দিয়ে আসছি। আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে মাঠে থেকেছি। সকল আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে কাজ করেছি। ভাইস চেয়ারম্যান থাকাকালীন জনগণের সুখ-দুঃখে পাশে থেকেছি। আশা করি দল আমাকে মূল্যায়ন করে মনোনয়ন দেবে।

বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশী মোস্তাফিজুর রহমান তালুকদার বাবলু বলেন, আমি বিএনপি’র দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী। যদি দল আমাকে মনোনয়ন না দেয় তাহলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিবো।

এ বিষয়ে সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার এএইচএম কামরুল হাসান বলেন, ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন উত্তোলন ও দাখিলের শেষ তারিখ ৯ অক্টোবর, মনোনয়ন যাচাই-বাছাই ১১ অক্টোবর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ১৭ অক্টোবর এবং নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২ নভেম্বর।

উল্লেখ্য, ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম অ্যাডভোকেট করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ৩০ জুলাই মৃত্যুবরণ করায় চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840