সংবাদ শিরোনাম:
রংপুরে শুরু হয়েছে শেখ হাসিনা অনুর্ধ্ব-১৫ টি টোয়েন্টি প্রমীলা ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ঘাটাইল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চশমা প্রতীক নিয়ে সাংবাদিক আতিক জনপ্রিয়তায় শীর্ষে ও জনসমর্থনে এগিয়ে ঘাটাইলে সেলাই মেশিন মার্কায় ভোট চাইলেন পৌর মেয়র আব্দুর রশীদ মিয়া টাঙ্গাইলে পুটিয়াজানী বাজারে দোকান ঘর ভাঙ্গচুরের অভিযোগ দেবরের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জে ২১৬ কেজি গাঁজাসহ আটক ২ ; কাভার্ড ভ্যান জব্দ সাফল্য অর্জনেও ব্যতীক্রম নয় জমজ দুই বোন,  লাইবা ও লামিয়া দুজনেই পেলেন জিপিএ- ৫ নাগরপুরে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার রাজপথে, প্রতিবাদ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত এক স্কুল থেকে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল জমজ দুই বোন মির্জাপুরে ধান চাল সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন টাঙ্গাইলে মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানের গার্ল-ইন- স্কাউটের সদস্যদের ডে ক্যাম্প
মধুপুর বনের জায়গা দখলের চেষ্টায় প্রভাবশালীরা

মধুপুর বনের জায়গা দখলের চেষ্টায় প্রভাবশালীরা

প্রতিদিন প্রতিবেদক মধুপুর: এশিয়া মহাদেশের তৃতীয় বহৎ শাল গজারির বনাঞ্চল মধুপুর গড়াঞ্চল।এ বনের কিছু সংখ্যক জায়গা বর্তমানে স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের লোকজন জবর দখল করার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।এ নিয়ে আতংষ্কে দিন কাটাচ্ছে উপকার ভোগীরা।

মধুপুর বনের জাতীয় উদ্যানের রাজাবাড়ী বিটের আওতাধীন কিছু বনের জায়গা জবর দখল করার অভিযোগ করেন প্লট উপকার ভোগীরা । উপকার ভোগীরা বনদুস্যদের অত্যাচার ও হুমকির কারনে উচ্ছেদ আতংষ্কে দিন কাটাচ্ছে।

বনের জায়গা প্লট উপকার ভোগী মধুপুর উপজেলার বেরীবাইদ ইউনিয়নের উপজাতি বীনেশ হাগিদগ,বিনীতা, সুরেলা রেমা, মোসলেম, শাজাহান সহ আরো অনেকে অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা উপজেলার কাঠালিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নান খন্দকারের ছেলে বাদশা খন্দকার, বছিরের ছেলে খোরশেদ সহ একই উপজেলার পাহাড় পাবইজান গ্রামের হেকিম ম্যানেজারের ছেলে রমজান আলী আকন্দ, কালামের ছেলে সোলাইমান মৃত নবাব আলীর ছেলে নওশের আলী, এরা সকলেই স্থানীয় প্রভাবের কারণে বনের জায়গা জবর দখলের জন্য উঠে পড়ে লেগেছে।

মধুপুর বনের জায়গায় রয়েছে সরকারি সামরিক বাহিনী বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ফায়ারিং রেঞ্জ রসুলপুর। এখানকার বিমান বাহিনীর লোকজনদের নাম ভাঙ্গিয়ে বনদুস্যরা বলেন বন বিভাগ তোদের যে প্লট দিয়েছে সেই প্লট বিমান বাহিনীর লোকজন আমাদের কে লিজ দিছে । তোরা বনের জায়গা ছেড়ে দে আমরা ফলের বাগান করব। আর যদি জায়গা আমাদের কে না দেস তাহলে বিঘা প্রতি সাড়ে ৪ হাজার করে টাকা দিতে হবে বলে দাবী করে।
আর যদি টাকা না দেস তাহলে তোদের কে ঐ জায়গা থেকে জোরপূর্বক তোদের কে উঠিয়ে দিব। তোদের বনের অফিসারগনও আমাদের কে ফিরাতে পারবে না।

বনের প্লটের উপকার ভোগী মধুপুর উপজেলার বেরীবাইদ ইউনিয়নের উপজাতি বীনেশ হাগিদগ,বিনীতা, সুরেলা রেমা, মোসলেম, শাজাহান সহ স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, আমরা সরকারের কাছে দাবী জানই যে আমাদের এই মধুপুর বনের জায়গা যাতে বনদস্যুরা জবর দখল না করতে পারে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

এব্যাপারে মধুপুর বনের জাতীয় উদ্যানের রাজাবাড়ী বিট কর্মকর্তা মো: জহিরুর ইসলাম জানান, মধুপুর গড়াঞ্চল একটি ইতিহাস ঐতিহ্য সমৃদ্ধ বনাঞ্চল। মধুপুর বনের প্রাকৃতিক পরিবেশ হারাতে বসেছে এই বনদুস্যদের কারনে । তাদের বিরুদ্ধে আইনঅনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থ্যা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে। এই বন বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় সম্পদ রক্ষার্থে স্থানীয় প্রশাসন, ধনবাড়ী মধুপুরের এমপি বর্তমান কৃষি মন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক সহ বন মন্ত্রী এবং প্রধান মন্ত্রীর হস্থক্ষেপ কামনা করছি।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840