সংবাদ শিরোনাম:
সখীপুরে ৫৩ তম মুক্তিবাহিনী দিবস পালিত ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মসজিদ কর্তৃপক্ষকে মারধরের হুমকি দেয়ার অভিযোগ গোপালপুরে দারোগার মাথা ফাটিয়েছে সন্ত্রাসীরা; গ্রেফতার ১৬ মির্জাপুরের সময়ের কথা এনজিওর দুই মালিক গ্রাহকের লক্ষ লক্ষ টাকা নিয়ে উধাও,অনশনে ভূক্তভোগীগন ঘাটাইলে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী টাঙ্গালে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সমাবেশ কে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা  বাতিঘর আদর্শ পাঠাগারের উদ্যোগে উচ্চশিক্ষা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে ব্যবসায়ীক ঝামেলাকে কেন্দ্র করে একজনকে কুপিয়ে আহত মির্জাপুরে মাটি ব্যবসা নিয়ে কোন্দল, মারামারি থানায় মামলা পরকীয়ার জেরে ভূঞাপুরে স্বামীর লিঙ্গ কেটে পালিয়েছে স্ত্রী
মহর আলীর হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে প্রতিকী ধর্মঘট

মহর আলীর হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে প্রতিকী ধর্মঘট

প্রতিদিন প্রতিবেদক: ব্যবসায়ী মহর আলীর হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে প্রতিকী ধর্মঘট পালন করেছে জেলা মৎস্য ব্যবসায়ীরা। বৃহস্পতিবার পার্ক বাজারসহ ৭টি বাজারের মৎস্য ব্যবসায়ীরা সকাল ১১টা থেকে ১১-৩০ মিনিট পর্যন্ত তাদের বিক্রি বন্ধ রেখে এ প্রতীক ধর্মঘট পালন করে।

মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য রাখেন, ব্যবসায়ী ঐক্যজোটের সভাপতি আবুল কালাম মোস্তফা লাভু, জাতীয় মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতি টাঙ্গাইল জেলা শাখার সভাপতি মো. নুরুল ইসলাম মাতাব্বর, সাধারণ সম্পাদক মো. আমীর হামজা, ব্যবসায়ী ফিরোজ আহমেদ, মো. ইমরান হোসেনসহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ।

এসময় বক্তারা বলেন, ১ মাস অতিবাহিত হলেও পুলিশ প্রশাসন এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত কাউকে সনাক্ত করতে পারেনি। ফলে আইনের প্রতি আস্তা হারাচ্ছে নিহতের পরিবার। তাই অনতিবিলম্বে হত্যাকারীদের সনাক্তসহ গ্রেফতারের দাবি জানান।তা না হলে কঠোর থেকে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন তারা।

উল্লেখ্য, গত ২ জুন বিকেলে মহর আলী তার ফার্নিচারের দোকান থেকে বের হয়ে যায়। পরে তাকে শহরের একটি সিসি ক্যামেরায় দেখা যায় রিক্সা যোগে যাচ্ছেন। তার পর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরের দিন ৩ জুন সকালে একটি ব্রিফকেসে শিরউচ্ছেদকৃত ও দুই পা বিচ্ছিন্ন দেহ পাওয়া যায়। খন্ডিত দেহ এবং পরিহিত শার্ট গেঞ্জি দেখে তার আত্মীয় স্বজন মহর আলী লাশ সনাক্ত করে। এ ঘটনায় নিহত মহর আলী ভাই ইশারত হোসেন বাদী হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর টাঙ্গাইল মডেল থানার সাব ইন্সপেক্টর মো. আবু সাদেক মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে তদন্ত শুরু করেন। নিহত মহর আলীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের সুত্রধরে কয়েকজন গৃহবধুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। পরে কয়েকজনকে ছেড়ে দেওয়া হলেও একজন মহিলাকে হাজতে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া মামলার কোন অগ্রগতি না হওয়ায় পরে মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই) তদন্তভার গ্রহন করেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840