সংবাদ শিরোনাম:
মির্জাপুরে পুলিশ হেফাজতে এক ব্যক্তির মৃত্যু, আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে এলাকাবাসী টাঙ্গাইল পৌর ভবনের সামনে স্থাপিত জাতির জনকের ভাস্কর্য ভেঙ্গে ফেলার এক বছরেও তা প্রতিস্থাপন হয়নি মাদক বিক্রির দায়ে মহিলা লীগ নেত্রী বহিস্কার সখীপুরে কৃষি মেলার উদ্বোধন নাগরপুরে সামাজিক সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত মধুপুরে বাল্য বিবাহ ও মাদক প্রতিরোধক বিষয়ক প্রশিক্ষণ ঘাটাইলে দায়িত্বে অবহেলার কারনে দুই শিক্ষককে অব্যাহতি ভূঞাপুরে আড়াই বছর পর ছাত্রলীগের কমিটি গঠন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হলেন ফজলুর রহমান খান জামিয়া আশরাফিয়া দারুল উলুম টাঙ্গাইল মাদ্রাসার আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রা শুরু
টাঙ্গাইল পৌরসভায় মেয়র ও কাউন্সিলরদের পূর্ণাঙ্গ ফলাফল

টাঙ্গাইল পৌরসভায় মেয়র ও কাউন্সিলরদের পূর্ণাঙ্গ ফলাফল

প্রতিদিন প্রতিবেদক : পৌরসভা নির্বাচনের ৩য় ধাপে শনিবার (৩০ জানুয়ারি) টাঙ্গাইলের পাঁচটি পৌর সভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। টাঙ্গাইল সদর পৌর সভায় মেয়র হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী সিরাজুল হক আলমগীর।

টাঙ্গাইলের সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান রাতে এ ফলাফল ঘোষনা করেন।

তিনি জানান, টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী সিরাজুল হক আলমগীর বেসরকারিভাবে ৫৯ হাজার ৯ শত ৬৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষ প্রার্থী মাহমুদুল হক সানু পেয়েছেন ১৯ হাজার ৬ শত ৬০ ভোট।

সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীরা হলেন:
১ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০১ নং ওয়াডে তানভির হাসান ফেরদৌস (নোমান) উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী ১হাজার সাত শত ৬২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী টেবির ল্যাম্প প্রতীকের প্রার্থী মোঃ সেলিম সিকদার পেয়েছেন ৫ শত ৭৫ ভোট। আব্দুল হামিদ পান্জাবি ৪৫০, হারুনর রশীদ ব্রিজ ২৯১,শহিদুল ইসলাম কবীর ডালিম ২৫১,মোঃ মমিনুল হক খান নিস্কন পানির বতল ১২৪,

২ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০২ নং ওয়াডে রুবেল মিয়া উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী ২ হাজার ১৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পানির বোতল প্রতীকের প্রার্থী মোঃ ইকবাল হোসেন পেয়েছেন ১ হাজার ৯ শত ৭৪ ভোট।মোঃ শাহজাহান মিয়া বাবু টেবিল ল্যাম্ব ১৩১৬,মোঃ মোকাদ্দেছ আলি পান্জাবি ৩৩১,ম্রীদুল দাস ডালিম ৬৯,


৩ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০৩ নং ওয়াডে মোঃ সাইফুল ইসলাম উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী ৪ হাজার ৩ শত ৩২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডালিম প্রতীকের প্রার্থী হেলাল ফকির পেয়েছেন ৩ হাজার ১ শত ১৩ ভোট।


৪ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০৪ নং ওয়াডে আনোয়ার সাদাৎ তানাকা পান্জাবি প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৮ শত ৮৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পানির বোতল প্রতীকের প্রার্থী মোঃ জহুরুল ইসলাম আজাদ পেয়েছেন ১ হাজার ৭ শত ১৪ ভোট।মীর মইনুল হক লিটন উট পাখি ১৬৩৭,।


৫ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০৫ নং ওয়াডে মোঃ আবুল কালাম আজাদ ডালিম প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৭ শত ১২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পানির বোতল প্রতীকের প্রার্থী মোঃ সাহানুর রহমান পেয়েছেন ১ হাজার ৪ শত ১৯ ভোট। মোঃবাবুল ইসলাম টেবিল ল্যাম্প ৮৬৫, মির্জা সাইফুল হোসেন পান্জাবি ৪০৬, মোঃ আবুল কালাম আজাদ উট পাখি ৩৭১, মোঃ আনোয়ার হোসেন, ডেরস ০০,।

৬ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০৬ নং ওয়াডে মোঃ মামুন জামান সজল উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী ২ হাজার ২ শত ৮৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পান্জাবি প্রতীকের প্রার্থী মোঃ শফিকুল হক শামীম পেয়েছেন ১ হাজার ২ শত ৩০ ভোট।মোঃ মনিরুজ্জামান খান পানির বতল ৪৯৯।


৭ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০৭ নং ওয়াডে সাহীদুল হক স্বপন উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৬ শত ৩৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডালিম প্রতীকের প্রার্থী মোঃ আকবর হোসেন পেয়েছেন ৮ শত ৫৩ ভোট। নীল কমল পাল পান্জাবি ৭৮৯, মোঃ ইসমাইল হোসেন পানির বতল ৪৮০।

৮ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০৮ নং ওয়াডে মোঃ নরুল ইসলাম রকি উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৬ শত ৪৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডালিম প্রতীকের প্রার্থী মোহাম্মদ আলী পেয়েছেন ১ হাজার ৫ শত ৯৩ ভোট। মোঃ শফিকুল ইসলাম পান্জাবি ১৫০৯,সুজিত সরকার পানির বতল ১৫৮।

০৯ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ০৯ নং ওয়াডে মোঃ ফারুক হোসেন পান্জাবি প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৩ শত ৬৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডালিম প্রতীকের প্রার্থী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক পেয়েছেন ১ হাজার ০৮ ভোট। মোঃ হাফিজুর রহমান ১১২৭, মোঃ শহিদুল ইসলাম ৮৫৫, শুকুর ৫২০, শাহিন ২৪২,আলম ০৪।

১০ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ১০ নং ওয়াডে মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন (বাদশা) পানির বোতল প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৯ শত ০৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী মোঃ আব্দুল মালেক সরকার পেয়েছেন ১ হাজার ৫ শত ৩৮ ভোট। রুস্তম আলি ৯৭২।

১১ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ১১ নং ওয়াডে মেহেদী হাসান আলীম (বাদশা) টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৯ শত ৯৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পান্জাবি প্রতীকের প্রার্থী মোঃ সালাউদ্দিন হায়দার পেয়েছেন ১ হাজার ৮ শত ৬৮ ভোট। আনিসুর রহমান ২৮৭, আঃ রহিম ২২৮, জান্নাতুল ফেরদুস ৩৫।

১২ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ১২ নং ওয়াডে মোঃ আমিনুর রহমান আমিন ডালিম প্রতীকের প্রার্থী ২ হাজার ১ শত ২৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী মোঃ মুনসুর রহমান পেয়েছেন ১ হাজার ৩ শত ৭৩ ভোট।সোনা মিয়া ১০৫৯,শাহিন মিয়া ৭৯, হাবব বোখারী ১৫।

১৩ নং ওয়াডে মুন্না চৌধুরী উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ১ শত ৮৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পানির বোতল প্রতীকের প্রার্থী মোঃ হযরত খান পেয়েছেন ৯ শত ১৩ ভোট। কমল কুমার ৭২৫,শহিদুজ্জামান খান ২৯৬,শফিকুল আলম সাচ্চা ১৭৪,আসাদুজ্জামান খান ৯৭, সোহেল রানা ৯১, শাহালম ৬১,শাহিমা খাতুন ৫০।

১৪ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ১৪ নং ওয়াডে মোহাম্মদ কামরুল হাসান টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের প্রার্থী ৩ হাজার ১ শত ১২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী মোঃ নুরুল ইসলাম পেয়েছেন ৮ শত ৪৩ ভোট। আমির আজম ১৪৭, রহুল আমিন রনি ৯২,।


১৫ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ১৫ নং ওয়াডে আব্দুল্লাহেল ওয়ারেছ হুমায়ুন টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের প্রার্থী ২ হাজার ৬ শত ৬৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী শহিদুর রহমান সিদ্দিকী পেয়েছেন ১ হাজার ৮ শত ৬২ ভোট। চন্দন সূত্র ধর ২৯২, আরিফুল ইসলাম ইনসান ১৯৯, মোমিনুল ইসলাম ৮৯।

১৬ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ১৬ নং ওয়াডে মোঃ হাফিজুর রহমান (স্বপন) টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের প্রার্থী ২ হাজার ৫ শত ৬৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উট পাখি প্রতীকের প্রার্থী মোহাম্মদ বরকত আলী বকুল পেয়েছেন ১ শত ৯৮ ভোট। নূরে আলম ১৩৩, মিঠু ৮৯, পূরবী বাবুল ৭৬, জনি ৩৫,এনামুল কবির ৩৩।

১৭ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ১৭ নং ওয়াডে মোহাম্মদ আতিকুর রহমান মোর্শেদ ডালিম প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৯ শত ৬৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের প্রার্থী মোঃ নাছিমুজ্জামান পেয়েছেন ১ হাজার ১ শত ৭১ ভোট। সাজ্জাদ আহমেদ সবুজ ৪৬৪, করিম ৪৯।

১৮ নং ওয়াড : টাঙ্গাইল সদর পৌরসভায় ১৮ নং ওয়াডে মোঃ আসাদুজ্জামান প্রিন্স ব্রিজ প্রতীকের প্রার্থী ১ হাজার ৭ শত ৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পান্জাবি প্রতীকের প্রার্থী মোঃ সাখাওয়াত হোসেন আলম পেয়েছেন ১ হাজার ২ শত ৭৮ ভোট।মাহবুবা করীম ৬২৭, ফজল ১০৪, মাহমুদুল হাসান ৩৯।

সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলররা হলেন :
১নং, ২নং এবং ৩নং ওয়ার্ডে মোছা: মাহমুদা বেগম (জেবু) চশমা প্রতীকের প্রার্থী ৯ হাজার ৭ শত ৯৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জবা ফুল প্রতীকের প্রার্থী মোছা: সুমী আক্তার পেয়েছেন ৫ হাজার ১১ ভোট।

৪নং, ৫নং এবং ৬নং ওয়ার্ডে ২ মোছা: সেলিনা আক্তার আনারস প্রতীকের প্রার্থী ৬ হাজার ১ শত ৪৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জবা ফুল প্রতীকের প্রার্থী পপি গুহ পেয়েছেন ৩ হাজার ৪ শত ৬১ ভোট।

৭নং, ৮নং এবং ৯নং ওয়ার্ডে খালেদা আক্তার স্বপ্না জবা ফুল প্রতীকের প্রার্থী ৫ হাজার ৭ শত ৫৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীকের প্রার্থী হাজেরা বেগম পেয়েছেন ৫ হাজার ৫ শত ১৩ ভোট।

১০নং, ১১নং এবং ১২নং ওয়াডে সেলিনা আক্তার চশমা প্রতীকের প্রার্থী ৩ হাজার ৮ শত ৬৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হারমোনিয়াম প্রতীকের প্রার্থী নার্গিস আক্তার পেয়েছেন ২ হাজার ৯ শত ৮৪ ভোট।

১৩নং, ১৪নং এবং ১৫নং ওয়ার্ডে উল্কা বেগম চশমা প্রতীকের প্রার্থী ৩ হাজার ৮ শত ৬৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অটোরিক্সা প্রতীকের প্রার্থী মাহমুদা জামান বিউটি পেয়েছেন ২ হাজার ৩ শত ২৭ ভোট।

১৬নং, ১৭নং এবং ১৮নং ওয়ার্ডে হোসনেয়ারা বিউটি চশমা প্রতীকের প্রার্থী ৩ হাজার ৫ শত ১২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অটোরিক্সা প্রতীকের প্রার্থী মাহাবুব আক্তার (মিলি) পেয়েছেন ২ হাজার ৯ শত ১০ ভোট।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840