সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইল মাভাবিপ্রবি’র কেউ নিয়োগ বাণিজ্য ও ঠিকাদারী করতে পারবে না

টাঙ্গাইল মাভাবিপ্রবি’র কেউ নিয়োগ বাণিজ্য ও ঠিকাদারী করতে পারবে না

প্রতিদিন প্রতিবেদক মাভাবিপ্রবি : টাঙ্গাইল ”মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার্স এসোসিয়েশনের কোনো প্রতিনিধি নিয়োগ বাণিজ্য ও গোপনে ঠিকাদারী করতে পারবে না।

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার্স এসোসিয়েশনের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি প্রার্থী মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম তার নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা করেন।

এ ইশতেহার ঘোষনায় কর্মকর্তাদের মাঝে সমালোচনার ঝড় তুলেছে।

নির্বাচনী ইশতেহারের শহিদুল ইসলাম জানান, ডেপুটি রেজিস্ট্রার/ সমমান কর্মকর্তাদের জন্য এডিশনাল রেজিস্ট্রার/ সমমান পদ সৃষ্টি করা এবং সমমান পদের জন্য ডেপুটি রেজিস্ট্রার পদে পদোন্নতি/ আপগ্রেডেশনের জন্য প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখা, অসুস্থ অফিসারদের চিকিৎসাসেবা প্রদান করা এবং মৃত্যুবরন করলে মৃত ব্যক্তির পরিবারকে স্বল্প সময়ে প্রাপ্ত অর্থ প্রদান করা।

সেই সাথে অকাল প্রয়াত ব্যক্তির পরিবারের যোগ্যতাসম্পন্ন ব্যক্তিকে চাকরির ব্যবস্থা করা, অফিসারদের কাজের দক্ষতা অর্জনের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা,

উচ্চশিক্ষার জন্য শিক্ষা ছুটির ব্যবস্থা করা, ডেপুটেশনের ব্যবস্থা করা, লিয়েনসহ খন্ডকালীন চাকুরির সুযোগ সৃষ্টি করা, টিচিং ব্যতিত নন টিচিং সকল পদে কর্মকর্তাদের মধ্য হতে অফিস প্রধান নিয়োগের ব্যবস্থা গ্রহনসহ মাভাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সামগ্রিক উন্নয়ন।

নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে একাডেমিক শাখার উপ-রেজিস্ট্রার মোঃ মাকসুদুর রহমান, নির্বাচন কমিশনার হিসেবে সহকারী রেজিস্ট্রার (স্টোর) মোঃ গোলাম মওলা এবং ক্রিমিনোলজি এন্ড পুলিশ সায়েন্স বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির দায়িত্ব পালন করবেন। নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ২০৪ জন।

উল্লেখ্য, আগামী ১২ মে অফিসার্স এসোসিয়েশনের নির্বাচনে মোট ১৭ টি পদের বিপরীতে প্রতিদ্বন্ধিতা করবেন ২৮ জন প্রার্থী। নির্বাচনে দুইটি নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেছে সভাপতি প্রার্থী মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম ও মোহাম্মদ মফিজুল ইসলাম মজনু।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840