ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তায় জিপিএ ফাইভ প্রাপ্ত পূজা কর্মকার

ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তায় জিপিএ ফাইভ প্রাপ্ত পূজা কর্মকার

প্রতিদিন প্রতিবেদক :  টাঙ্গাইলের কালিহাতীর উপজেলার দশকিয়া গ্রামের পূজা রানী কর্মকার ছোট বেলা থেকেই অত্যন্ত মেধাবী ছাত্রী। পরিবারের সকল অভাব অনটন জয় করে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় পটল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়ে কৃতকার্য হয়েছে। তবে পূজার এ অর্জন অন্য আটদশ ছাত্রীর মতো মসৃণ নয়। তাকে পোহাতে হয় সংসারের দারিদ্র্যতা।
বাবা নেপাল কর্মকার একটি দোকানে কাজ করেন এবং মা লক্ষ্মী রানী কর্মকার সম্পূর্ণ গৃহিণী। তাদের দুই মেয়ের মধ্যে পূজা বড়। সংসারের খরচ চালিয়ে দুই মেয়েকে লেখাপড়া করানো তাদের পক্ষে খুবই কষ্টকর ব্যাপার। তবুও অদম্য ইচ্ছে থেকে বিন্দুমাত্র সরে আসে নি পূজা। তার লেখাপড়ায় প্রতিনিয়তই উৎসাহ ও সহযোগিতা করেছে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
পটল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রমেন্দ্রনাথ সাহা বলেন পূজা কর্মকর্তা আমাদের স্কুলের মেধাবী ছাত্রী। প্রতি ক্লাসেই ভাল রেজাল্ট করেছে। পরিবারের আর্থিক অসচ্ছলতার কারনে ম্যানেজিং কমিটির সুপারিশে ষষ্ঠ শ্রেণী থেকে পূজার কোন বেতন নেওয়া হয় নি। উচ্চশিক্ষিতা হয়ে দেশ ও জাতির যেন মঙ্গল করে এ আশীর্বাদ করি। তবে অর্থ সংকটে যেনো পূজার লেখাপড়া বন্ধ না হয়ে যায়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
কালিহাতি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোস্তফা কবীর বলেন পটল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী পূজা রাণী কর্মকার এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে জিপিএ ফাইভ পেয়েছে। সে অতি দরিদ্র পরিবারের সন্তান। অনেক প্রতিকুল অবস্থা পেরিয়ে ভাল ফলাফল অর্জন করেছে। এ জন্য তাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।  সমাজের বিত্তবান ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিদের সহযোগিতা পায়, তবেই সে ভবিষ্যতে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে পারবে আমি বিশ্বাস করি।
পূজা রানী কর্মকার বলেন আমার বাবার পক্ষে দুবোনের খরচ বহন করা দূরহ। তবুও লেখাপড়া করে যাচ্ছি। অনেক বাধা ও কষ্ট করে এ পর্যন্ত এসেছি। অনেকের উৎসাহ সহযোগিতা পেয়েছি। তবে আর্থিক সংকটের কারনে ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি। ছোট বেলা থেকে ডাক্তার হওয়ার ইচ্ছে আমার। কারন দেশ ও জাতির সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে চাই। এইচএসসিতে টাঙ্গাইলের সরকারি কুমুদিনী কলেজে ভর্তি হতে চাই। তবে চিন্তা করি বাবা কতটুকু সাপোর্ট করতে পারবেন। আমি সকলের কাছে আশীর্বাদ চাই।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840