সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইলে টিচার্স ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সনদ ও বৃত্তি প্রদান কালিহাতীতে নিখোঁজের ৮ দিন পর ধান ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার সখীপুরে ৫৩ তম মুক্তিবাহিনী দিবস পালিত ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মসজিদ কর্তৃপক্ষকে মারধরের হুমকি দেয়ার অভিযোগ গোপালপুরে দারোগার মাথা ফাটিয়েছে সন্ত্রাসীরা; গ্রেফতার ১৬ মির্জাপুরের সময়ের কথা এনজিওর দুই মালিক গ্রাহকের লক্ষ লক্ষ টাকা নিয়ে উধাও,অনশনে ভূক্তভোগীগন ঘাটাইলে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী টাঙ্গালে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সমাবেশ কে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা  বাতিঘর আদর্শ পাঠাগারের উদ্যোগে উচ্চশিক্ষা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে ব্যবসায়ীক ঝামেলাকে কেন্দ্র করে একজনকে কুপিয়ে আহত
সৎ মা শিশু সাইফকে হাত-পা বেঁধে হত্যা করে

সৎ মা শিশু সাইফকে হাত-পা বেঁধে হত্যা করে

প্রতিদিন প্রতিবেদক: শিশু সাইফ এর হাত-পা বেঁধে বাসার একটি কক্ষে আটকে রাখার কারণে মৃত্যু হয়। আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দিতে এ কথা জানিয়েছেন সৎ মা। টিভির ভলিয়ম না কমানোর জন্য পাশের একটি কক্ষে আটকে রাখা হয় সাইফকে। ৩০/৪০ মিনিট পর দরজা খুলে দেখতে পান সাইফ বেঁচে নেই। পরে হাত-পা বাঁধা অবস্থাতেই সাইফকে বাথরুমে পানির বালতিতে মুখ ডুবিয়ে রাখেন। পরে ডাকাতির নাটক সাজিয়ে সাইফের বাবাকে ফোন দেন।

সাইফ (৯) হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত সাইফের সৎ মা সাবরিনা নাহার সিনথি সোমবার আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দিতে এ কথা জানিয়েছেন। সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুনিরা সুলতানা সাবরিনা নাহারের জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন। পরে তাকে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেন আদালত।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি-দক্ষিণ) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল কুমার দত্ত জানান, শহরের আমিন বাজার এলাকায় সাইফের বাবা ভাড়া বাসায় থাকতেন। নিহত সাইফের সৎ মা গত শনিবার রাত আটটার দিকে ফোন করে সাইফের বাবা মো. সালাউদ্দিনকে জানান অজ্ঞাতনামা তিনজন দুস্কৃতিকারী তাদের বাসায় ঢুকে তার ও ছেলের হাত-পা বেধে স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে গেছে। তারা সাইফকে বাথরুমে পানির বালতিতে ডুবিয়ে রেখে গেছে যাওয়ার সময়। ফোন পেয়ে সাইফের বাবা তার কম্পিউটার সেন্টার থেকে বাসায় গিয়ে ছেলেকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। এসময় ডাক্তার তাকে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে মৃত ঘোষনা করেন।

এর আগে খবর পেয়ে টাঙ্গাইল সদর থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করে। সাবরিনা নাহারের ঘটনার বর্ণনাটি তাদের রহস্যজনক মনে হয়। পরে পুলিশ সাবরিনা নাহার ও তার স্বামী সালাউদ্দিনকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সাবরিনা সাইফকে হাত-পা বেঁধে ঘরে আটকে রাখার এক পর্যায়ে মৃত্যু হয় বলে জানান। পরে তিনি আদালতে জবানবন্দি দিতে রাজি হন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840