সংবাদ শিরোনাম:
ধনবাড়ীতে প্রাইভেটকার চাপায় নিহত ১ আহত ৪ ভূঞাপুরে ৩৭টি পূজা মন্ডপে পৌর মেয়রের আর্থিক অনুদান টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর সম্পাদক রৌফ সাফ জয়ী কৃষ্ণা রানী সরকার ও কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটনকে সংবর্ধনা দিয়েছে টাঙ্গাইল জেলা ক্রীড়া সংস্থা ভাসানীর মাজারে ন্যাপ ভাসানীর পুষ্পস্তবক অর্পণ গোপালপুরে কৃষ্ণাকে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সংবর্ধনা নাগরপুরে এবারের দুর্গোৎসব হবে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় বজ্রপাত প্রতিরোধে বাতিঘর আদর্শ পাঠাগারের উদ্যোগে তালবীজ বপন বিএনপির মিথ্যাচার করে দেশে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করছে -কৃষিমন্ত্রী হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জনকারী তাকরীমকে সংবর্ধনা
টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে জমজমাট পিঠা উৎসব

টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে জমজমাট পিঠা উৎসব

প্রতিদিন প্রতিবেদক : শীতের শেষ সময়ে এসে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে আয়োজন করা হয়েছে পিঠা উৎসবের। পিঠা উৎসবে অংশ নিতে নানা পিঠার সমাহার নিয়ে হাজির ছিলেন প্রতিযোগীসহ শিক্ষার্থীরা।

উৎসবে স্টলে স্টলে শোভা পাচ্ছিল বাঙালি ঐতিহ্যের নানা রকম পিঠার সমাহার। পুুলি, ভাপা, চিতই, পাটিসাপটা, মাংস পিঠা, নকশা, পাকন, পুলি, মিঠা, ক্ষীরপুলি, নারিকেল পুলি, আনারকলি, দুধসাগর, সন্দেশ, শামুক, ডিমসহ নানা নামের পিঠা।

শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) সকালে পিঠা উৎসবের উদ্বোধন করেন টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘অসম্ভব চমৎকার চিরায়ত বাঙালির যে ভালো লাগার একটা অনুভূতি এ পিঠা উৎসবের আয়োজন। পিঠা উৎসবে এসে আমার খুব ভাল লেগেছে। বহিঃবিশ্বে আমাদের দেশের পিঠাকে কিভাবে খাদ্য শিল্প হিসেবে আমরা তুলে ধরতে পারি এবং কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পারি সরকারের পক্ষ থেকে এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উৎসাহ ও সহযোগিতা করা হবে।’

টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি জাফর আহমেদের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন টাঙ্গাইল পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীর, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কাজী জাকেরুল মওলা, সেলস্ অ্যান্ড রিভিউ জোনের মাসুদ রানা।

পিঠা উৎসবে ২০ জন প্রতিযোগী অংশ নিয়েছেন।

উৎসবে আসা স্কুল শিক্ষার্থী সোহাইল বেরাজ বলেন, ‘পিঠা উৎসব আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে। শীতকাল এলেই আমাদের বাড়িতে মা পিঠা বানায়। সকলের সাথে পিঠা খেতে বেশ ভাল লাগে।’

মেহেদী হাসান বলেন, ‘শীতকাল আমাদের অনেকের কাছেই প্রিয়। বাঙালি ঐতিহ্যগত কারণে এ ঋতুর সঙ্গে পিঠার অন্যরকম মিল রয়েছে। পিঠা উৎসবের মাধ্যমে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের মিলনমেলা তৈরি হয়েছে।’

‘কানস পিঠা উৎসব’ স্টলের শান্তা ও ‘স্বাদের রান্না ঘর’ স্টলের তাহমিনা তৃপ্তি বললেন, করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। ঘরে বসে বেশিরভাগ শিক্ষার্থীরা অলস সময় পার করেছে। আবার অনেকেই সময়কে কাজে লাগিয়ে বাহারি রকমের পিঠা তৈরি করে অনলাইনে বিক্রি করছে। পিঠা উৎসবে অংশ নিতে পেরে খুব ভালই লাগছে।

টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি বলেন, ‘টাঙ্গাইলের শাড়ী যে রকম দেশব্যাপি পরিচিতি লাভ করেছে, ঠিক সেইভাবে টাঙ্গাইলের পিঠা যাতে দেশব্যাপি পরিচিত লাভ করে সেই লক্ষ্যেই প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে পিঠা উৎসবের আয়োজন। ভবিষ্যতে বড় আকারে পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হবে।’

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840